আবার বদলি হলেন ব্যারাকপুরের পুলিশ কমিশনার

আবার বদলি হলেন ব্যারাকপুরের পুলিশ কমিশনার

 

অরিন্দম রায় চৌধুরী, ব্যারাকপুরঃ ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেট বা ব্যারাকপুর সিটি পুলিশ হল পশ্চিমবঙ্গের ব্যারাকপুর মহকুমা এলাকার আইন শৃঙ্খলার রক্ষার্থে গঠিত একটি বিশেষ পুলিশ বাহিনি। ২০১২ সালের ২০ জানুয়ারি এই কমিশনারেট গঠিত হয়। এটি পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের অঙ্গ এবং পশ্চিমবঙ্গ সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের নিয়ন্ত্রণাধীন। উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলা পুলিশ বিভাগকে ভেঙে এই কমিশনারেট তৈরি হয়েছে। এই কমিশনারেটের অধীনে ১২টি থানা রয়েছে। থানাগুলি যথারীতি হল বীজপুর থানা, নৈহাটি থানা , জগদ্দল থানা, নোয়াপাড়া থানা, ব্যারাকপুর থানা, টিটাগড় থানা, খড়দহ থানা, ঘোলা থানা, বেলঘড়িয়া থানা, বরানগর থানা, ও নিমতা থানা। স্বাভাবিক ভাবেই ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারের প্রধান কার্যালয় ব্যারাকপুর শহরে অবস্থিত। এর দুটি বিভাগ–ব্যারাকপুর ও বেলঘড়িয়া। কমিশনারেটের মোট আয়তন ২৯৭ বর্গ কিলোমিটার। এর অধীনে আছে ১২টি থানা। পুলিশের ইন্সপেক্টর-জেনেরেলের সমতুল্য মর্যাদাসম্পন্ন একজন ইন্ডিয়ান পুলিশ সার্ভিস অফিসার এই কমিশনারেটের প্রধান হন। সেই সময় সঞ্জয় মুখোপাধ্যায় এই কমিশনারেটের প্রথম পুলিশ কমিশনার নিযুক্ত হন। কমিশনারের সাহায্যার্থে দুজন সহকারী বা যুগ্ম কমিশনার থাকেন। দুই বিভাগের জন্য দুজন ডেপুটি পুলিশ কমিশনার থাকেন। গোয়েন্দা ও ট্র্যাফিক বিভাগ সহ অন্যান্য দফতরের দায়িত্বে থাকেন ডেপুটি সুপারইন্টেন্ডেন্টের সমতুল্য মর্যাদার অতিরিক্ত ডেপুটি পুলিশ কমিশনারেরা। থানার দায়িত্বে থাকেন ইনস্পেক্টর।

সঞ্জয় মুখোপাধ্যায় কিছু বুঝে ওঠার আগেই বদলি হয়ে যান। এরপর ব্যারাকপুর কমিশনারেটে আসেন অনেক দিকপাল আইপিএস আধিকারিক এই কমিশনার পদে, কিন্তু কেউই বেশিদিন থাকতে পারেন নি। পরপর এসেছেন আরও ৬জন আইপিএস আধিকারিক যেমন সঞ্জয় সিং, বিশাল গর্গ, নীরজ কুমার সিং, তন্ময় রায় চৌধুরী, সুব্রত মিত্র ও রাজেশ কুমার সিং। এবার ব্যারাকপুরের বর্তমান নগরপাল ডঃ রাজেশ কুমার সিং এর পরিবর্তে নতুন নগরপাল হলেন সুনীল কুমার চৌধুরী। এর আগে অবশ্য সুনীল কুমার চৌধুরী ডিআইজি প্রেসিডেন্সি রেঞ্জ ছিলেন। অন্যদিকে ডঃ রাজেশকুমার সিংহ আইজি প্রেসিডেন্সি রেঞ্জ হিসেবে সুনীল কুয়ার সিং এর স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন। এছাড়াও একইসাথে এবার আরও কিছু আইপিএস আধিকারিক বদলি হলেন। অতএব এই মুহূর্তে ব্যারাকপুরের ৮তম হলেন সুনীল কুমার চৌধুরী।

You May Share This
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *