শরীর আপনার মন্দির আর আপনি তার ঈশ্বর

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

রাজীব মুখার্জী, হাওড়াঃ নতুন ঋতু পরিবর্তনের সাথে সাথে ছোট থেকে বড়ো অনেকেই সর্দি, কাশি, জ্বরের সমস্যাতে ভুগছেন। ইদানিং দেখা যাচ্ছে প্রায়শই এই সমস্যা উৎসবের দিন গুলোতেও তাদের ও তাদের পরিবারের আনন্দ করার পথে অন্তরায় হয়ে দাঁড়াচ্ছে। এই সমস্ত উপসর্গ মূলত সাধারণ জীবাণুর জন্য আমরা সর্দি, কাশিতে আক্রান্ত হই। একজনের শরীরে ঢোকা জীবাণু খুব সহজেই ছড়িয়ে পড়ে আপনার পাশে থাকা ব্যক্তির শরীরে। তিনিও আক্রান্ত হতে পারেন খুব সহজেই কিন্তু সহজ কিছু অভ্যাসই আপনাকে এই সমস্ত জীবাণুর হাত থেকে বাঁচাতে পারে। তাই খাওয়াদাওয়ার আগে অবশ্যই ভালো করে হাত ধুয়ে নিন। পরিবারের বাকিদের মধ্যেও বিশেষ করে পরিবারের খুদে সদস্যদের মধ্যে এই অভ্যাস গড়ে তুলতে সাহায্য করুন। এমনকী হাঁচি-কাশির সময় মুখে হাট দিয়ে রাখুন ও তারপরে চেষ্টা করুন হাত পরিষ্কার রাখুন। সাধারণত শরীরের নিজস্ব রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতা কমতে থাকলেও বারবার আপনি সর্দি, কাশি এমনকী, জ্বরের মতো সমস্যাতেও ভুগতে পারেন বারবার।

চিকিৎসকরা বলছেন, ডায়েট মেনে খাওয়াদাওয়া এবং যোগাভ্যাস করলে এই সমস্যা থেকে রেহাই পেতে পারেন আপনি। জল বেশি করে খান। কম জল পান করার অভ্যাস থাকলে, তা এখনি বদলান। এই একটি অভ্যাস আপনাকে অনেক রোগের হাত থেকে সহজেই প্রাথমিক ভাবে মুক্ত করবে। নইলে বড়সড় শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে আপনার। জল কম পানের ফলে শুধু যে পেট কিংবা হজমের সমস্যা হয় তা নয়, বরং এর দরুন কমে যেতে পারে আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও। রোগের কবল থেকে মুক্তি পেতে দাঁত দিয়ে নখ কাটা এমনকী মুখে হাত দেওয়ার অভ্যাস থাকলে তা বদলে ফেলুন। কারন এই অভ্যাসের জন্য প্রতিদিন হাজার হাজার জীবাণু আপনার শরীরে প্রবেশ করার ঝুঁকি থাকতে পারে।

 

চিকিৎসকদের মতে, সাধারণত জীবাণুজনিত কারণে সর্দি-কাশি হলে, তা সারতে সময় লাগে চার-পাঁচদিন। কিন্তু সর্দি, কাশি কিংবা জ্বর দীর্ঘমেয়াদী হলে তা চিন্তার বিষয়। তাই এখনই চিকিৎসকের কাছে যান। রক্ত পরীক্ষা করান। অনেক সময় অ্যালার্জি থেকেও এই সমস্যা হতে পারে আপনার। বেশ কিছু সব্জি ও ফল আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। প্রতিদিনের খাবারের তালিকাতে পেঁপে, শশা, রসুন, হলদি, কাঁচা লঙ্কা প্রভৃতি খাবার গুলো রাখুন।

এছাড়া বেশ কিছু অভ্যাস যা আপনাকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে-
১) ধূমপান আয়ত্তের মধ্যে রাখুন।
২)বেশি করে সবুজ সবজি ও ফল খান।
৩)ব্যায়াম করুন নিয়মিত।
৪) নিজের উচ্চতা অনুযায়ী শরীরের ওজন বজায় রাখুন।
৫) যদি অ্যালকোহল খান সেটা পরিমিত হওয়া ভালো। কারন অ্যালকোহল শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বাড়াতে সাহায্য করে।
৬)পর্যাপ্ত ঘুমান নিজের শরীরের বয়স অনুযায়ী।                                                                                                                                                                                ৭)রান্না করার সময় হাত পরিষ্কার রাখুন।                                                                                                                                                                                      ৮)নিজের মানসিক চাপ কম রাখার চেষ্টা করুন।

সম্পর্কিত সংবাদ