বিজেপি করার অপরাধে জমির লিজ টাকা আটকে দেওয়ার অভিযোগ, অভিযোগের তীর শাসক দলের বিরুদ্ধে

Spread the love
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

 

শান্তনু বিশ্বাস, বসিরহাটঃ বিজেপি করার অপরাধে জমির লিজ টাকা আটকে দেওয়ার অভিযোগ উঠলো মিনাখাঁ থানার অন্তরগত আটপুকুর অঞ্চলের উচিলদহ গ্রাম এলাকার শাসক দলের ওপর। প্রাপ্ত লিজ টাকা চাইতে গেলে প্রাণ নাশের হুমকি ফিসারী মালিকের। স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে, এই গ্রামের বাসিন্দা বিশ্বেশ্বর পাইক ওরফে রাজা, এলাকার সক্রিয় বিজেপি কর্মী। সদ্য মিটে যাওয়া পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূলের সন্ত্রাস উপেক্ষ্য করে উচিলদহ গ্রামে তিনটি বুথের দ্বায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেয়। এমনি উত্তর উচিলদহ বুথের মহিলা প্রার্থী সংরক্ষিত থাকায় নিজের স্ত্রী কে নির্বাচনে দাড় করায়। নির্বাচনের দিন ব্যপোক হারে ছাপ্পা ভোট করিয়ে এই বুথে ২২ টি ভোটে জয়ী হয় তৃণমূল।


পঞ্চায়েত নির্বাচনে মিটে যাওয়ার পর এই বিজেপি কর্মী বিশ্বেশ্বর পাইক কে জমির লিজ টাকা দেওয়া বন্ধ করে দেয়। বিশ্বেশ্বর পাইকের বক্তব্য, নিজের সম্পত্তি ওই এলাকারই বাসিন্দা মিলন দাস ও হরিপদ মিস্ত্রী নামে দুই ফিসারী মালিকের কাছে লিজে দেওয়া আছে বেশ কয়েক বছর ধরে। এর আগেও জমির লিজ টাকা ঠিক ঠাক মতো দিয়ে দিলেও এবার আর লিজ টাকা দেয়নি বলে অভিযোগ। এমনি কি তার প্রাপ্ত লিজ টাকা চাইতে গেলে তাঁকে প্রাণনাশের হুমকিও দিয়েছে বলে অভিযোগ করেন এই বিজেপি কর্মী। এই সমস্যার কথা জানিয়ে হাড়োয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন বিশ্বেশ্বর পাইক। কিন্তু ওনার অভিযোগ, তাতে কোন সুরাহ হয়নি আজও। জমির লিজ টাকা ও চাষবাসের উপর নির্ভরশীল এই পরিবার। এই ভাবে জমির লিজ বন্ধ করে দেওয়ায় সংসার চালানো ও তিনটি মেয়ের পড়াশুনার খরচ চালাতে হিমসিম খেতে হচ্ছে বলে দাবী করে এই বিজেপি কর্মী বিশ্বেশ্বর পাইকের। অভিযুক্ত ফিসারী মালিক হরিপদ মিস্ত্রী কে ফোন করলে কল রিসিভ করেননি। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে হাড়োয়া থানার পুলিশ।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment