পনের দাবিতে অত্যাচার, গৃহবধূর আত্মহত্যায় প্ররচনার অভিযোগে গ্রেপ্তার ৫

Spread the love
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

জয় চক্রবর্তী, বাগদাঃ ঘটনাটি ঘটে বাগদা থানার সিন্দ্রানি পঞ্চায়েতের কমলাবাস গ্রামে। পুলিশ জানিয়েছে মৃত গৃহবধূর নাম অসীমা মন্ডল (২৫)। এই ঘটনায় মৃতার স্বামী, শ্বাশুড়ী, দেওর, ননদ সহ পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বছর পাঁচেক আগে অসীমার সাথে কমলাবাস গ্রামের বিপ্লব মন্ডলের বিয়ে হয়। বিপ্লব কর্ম সূত্রে সৌদি আরবে থাকে। সম্প্রতি সে ছুটিতে বাড়ি আসে। বিয়ের পর থেকেই পনের দাবিতে শ্বশুর ও বাড়ির লোক জনেরা অত্যাচার করতো বলে অভিযোগ। রবিবার সকালে স্বামীর সঙ্গে অসীমার ঝগড়া হয়। তারপর অসীমার স্বামী রথের মেলায় অন্যত্র চলে যায়। দুপুর বেলায় ঘরের দরজা বন্ধ দেখে ডাকাডাকিতেও দরজা না খোলায় দরজা ভেঙ্গে দেখে যায় সিলিং ফ্যানের অসীমার ঝুলন্ত দেহ। তারপর ওই গৃহবধূর বাপের বাড়িতে খবর দেওয়া হয়। মৃতার পিতা শান্তিপদ বিশ্বাস এসে মেয়ের মৃতদেহ দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। পরে শান্তিপদ বাবু বাগদা থানায় অসীমার স্বামী, শ্বশুর ও শ্বাশুড়ী সহ পাঁচ জনের নামে পনের দাবিতে অত্যাচার ও আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে বাগদা থানার পুলিশ রাত্রে পাঁচ জনকেই গ্রেপ্তার করে। ধৃত ওই পাঁচ জনকে বনগাঁ মহকুমা আদালতে তোলা হয়।

সম্পর্কিত সংবাদ