সরকারী হাসপাতাল থেকে রোগী উধাত্ত, হাসপাতালের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে রুগীর পরিবার

Spread the love
  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    8
    Shares

শান্তনু বিশ্বাস, অশোকনগরঃ উওর ২৪ পরগনার গাইঘাটা থানার অন্তরগর্ত চাঁদপাড়া ফুলশরা থেকে নিতাই মন্ডল (৫৪) ছেলে মিলন মন্ডলের কাছে বেরাতে এসে অসুস্থ হয়ে পরে গত ১৮ই জুলাই। অশোকনগর হাসপাতালে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের ডাক্তার দেখে তাকে কিছু শারিরীক পরীক্ষা করতে বলে এবং নিতাই মন্ডল কে ভর্তি নিয়ে নেয়। পরের দিন অথাৎ ১৯শে জুলাই, ডাক্তার ছেলে মিলন মন্ডল কে জানায় তার বাবার হার্টের অসুবিধে আছে এবং শরীরে রক্ত পরিমানে অনেক কম। চিকিতসকের পরামর্শ নিয়ে রক্ত দেওয়া হয় তাকে। হঠাৎ ২২শে জুলাই, সকালে হাসপাতাল থেকে ছেলে মিলন মন্ডল কে ফোন করে জানানো হয় তার বাবা কে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা। ঘটনার কথা শোনা মাত্রই ছেলে মিলন মন্ডল হাসপাতালে ছুটে আসে এবং কর্তব্যরত আয়া, নার্স ও ডাক্তার কে তার বাবার কথা জিজ্ঞ্যাসা করলে কারও কাছ থেকে কোন সদুত্তর পায়না সে। হাসপাতাল সুপারের সাথে দেখা করলে তিনি দায় এড়িয়ে যায় এই ঘটনার। পরিবারের পক্ষ থেকে সমস্ত আত্মীয়, বন্ধু-বান্ধবের বাড়িতে খোঁজ নেওয়া হলেও নিতাই মন্ডলের খোঁজ মেলেনি। সব পথ হাড়িয়ে অশোকনগর থানায় ২৪শে জুলাই, মঙ্গলবার রাতে অভিযোগ দায়ের করে ছেলে মিলন মন্ডল। এখন পরিবারের প্রশ্ন যে, গোটা সিসিটিভি তে মোরা হাসপাতাল চত্বর। হাসপাতালের নিরাপত্তা রক্ষী দায়িত্বে থাকা সত্ত্বেও কী করে রুগী নিখোঁজ হয়?। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে অশোকনগর থানার পুলিশ।

সম্পর্কিত সংবাদ