যুবকের মৃত্যুকে ঘিরে চাঞ্চল্য

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সন্দীপ ঘোষ, ঝাড়গ্রাম:

২ রা জুন ঝাড়গ্রাম জেলার জাম্বনী থানার গিধনী এলাকার চাঁদাবিলা গ্রামে যুবকের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য। পুলিশ জানিয়েছে মৃত যুবকের নাম জয় ওরফে জয়দেব মাহাত (২৭)। বাড়ী ওই গ্রামে। পেশায় গাড়ির চালক ছিলেন। এই ঘটনার আগের দিনে জয় ডিএলএডি’র পরীক্ষার্থীদের একটি মেক্স গাড়ীতে করে নিয়ে গিয়েছিলেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, বাড়ী থেকে প্রায় ১০০ মিটার দুরে একটি ছাতনি গাছের ডালে দঁড়িতে ফাঁসি লাগানো অবস্থায় স্থানীয় মানুষজনেরা প্রথমে দেখতে পান। এরপরে খবর দেওয়া হয় জয় এর বাড়ীতে। খবর পাওয়ার পরেই তার পরিবারের লোকজনেরা ছুটে আসেন ঘটনাস্থলে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, জয়ের দুটি শিশু সন্তান রয়েছে। গত শুক্রবার দিন তার স্ত্রী এবং দুই শিশু সন্তানকে তার শ্বশুর বাড়ীতে রেখে আসেন জয়। তারপর ওই দিন রাত ৮ টা নাগাদ বাড়ীর লোকজন তাঁকে খাবার খাওয়ার কথা বলেন। কিন্তু জয় বাজার থেকে ঘুরে এসে খাবে বলে জানিয়ে দেন। পরে দীর্ঘ সময় জয় আসছে না দেখে তার মোবাইল ফোন করেন তাঁর পারিবারের লোক জনেরা। কিন্তু তাঁকে মোবাইলে পাওয়া যায়নি। এরপর তাঁর খাওয়ার বেড়ে দিয়ে ঘুমিয়ে যায়। পরের দিন অর্থাৎ ২ রা জুন সকালে জয়ের নিথর দেহ ছাতনি গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায় মানুষজন। ঘটনার খবর পেয়ে জাম্বনী থানার পুলিশ ঘটনা স্থলে এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঝাড়গ্রাম জেলা হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন।

অন্যদিকে জয়ের এই অকাল মৃত্যুর ঘটনা মেনে নিতে পারছেন না তার পরিবার, অত্মীয় পরিজনেরা। যেহেতু জয় শান্ত ও ধীর স্বাভাবের মানুষ ছিলেন তাই তার এই অকাল মৃত্যুর খবর পাওয়ার পরেই গোটা গিধনী এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। তবে কি সে নিজেই আত্মহত্যা করেছে না কি তাঁকে খুন করে দড়ি লাগিয়ে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে তা তদন্ত করে দেখছেন পুলিশ।

সম্পর্কিত সংবাদ