পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রাককালে বেলপাহাড়ীতে এসটি এসসি সেলের ডাকে সমাবেশ

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সন্দীপ ঘোষ, ঝাড়গ্রাম:

যারা পঞ্চাশ বছরেও আদিবাসী, সাঁওতাল সমাজের কোনও উন্নয়ন করেনি। এখন তারা আদিবাসী সাঁত্ততাল সমাজকে ভুল বুঝিয়ে বিপথে চালিত করার চেষ্টা করছে। এভাবে সিপিএম, বিজেপিকে এক হাতে নিলেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি অজিত মাইতি। তিনি বলেন, আজ আদিবাসী মানুষ জনকে বিভ্রান্ত করছে সিপিএম, বিজেপি। আদিবাসী সমাজের প্রতিনিধিরা মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে আদিবাসী সমাজের উন্নয়নের জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি তাঁর উপরে আস্থা রেখেছেন। তাই আজ যারা মিথ্যা রটনা করছে তারা আর যাই হোক মানুষের পাশে নেই মানুষও তাদের পাশে নেই।

২১শে এপ্রিল বেলপাহাড়ির প্রত্যন্ত এলাকা চাকাডোবাতে তপশিলি জাতি উপজাতিদের নিয়ে পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রথম জনসভা থেকে ঝাড়গ্রাম জেলা তৃণমূলের সভাপতি অজিত মাইতি আদিবাসীদের জন্য রাজ্য সরকার যে উন্নয়ন করেছে তা তুলে ধরে বিজেপি, সিপিএমকে হুঁশিয়ারি দিয়ে কথা বলেন। এদিন ঝাড়গ্রাম জেলা তৃণমূলের এসটি এসসি সেলের ডাকে বিনপুর দুই ব্লক তথা বেলপাহাড়ির প্রত্যন্ত গ্রাম চাকাডোবাতে এক প্রকাশ্য জনসভা হয়। এই জনসভা থেকে বিনপুর দুই ব্লকের ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনের বিভিন্ন আসনের প্রার্থীদের হয়ে প্রচার করেন জেলা তৃণমূলের নেতৃত্ব। এক সময় মাওবাদীদের আতুর ঘর বলে পরিচিত বেলপাহাড়ির এই চাকাডোবা। এখানকার মানুষজন মাওবাদীদের সন্ত্রাস দেখেছে। দেখেছে হার্মাদের তান্ডব। আদিবাসী অধ্যুষিত এই অঞ্চল বর্তমান রাজ্য সরকারের আমলে দেখেছে উন্নয়নের জোয়ার। এই প্রেক্ষিতে বিজেপির পক্ষ থেকে বারবার প্রচার করা হচ্ছে এই সরকার আদিবাসীদের বঞ্চিত করেছে। তৃণমূল নেতৃত্ব এদিন চাকাডোবার সভা মঞ্চ থেকে উন্নয়নকে হাতিয়ার করে বিজেপি, সিপিএমের অভিযোগ নস্যাৎ করছে। এদিন চাকাডোবার সভা মঞ্চ থেকে বিনপুর দুই ব্লকের গ্রামপঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি এবং জেলাপরিষদের প্রার্থীদের হয়ে প্রচার রাখেন নেতৃত্ব। সভায় উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন আসনের প্রার্থীরাও। এদিনের শাসক দলের পক্ষ থেকে পঞ্চায়েত নির্বাচন উপলক্ষে প্রথম বড় জনসভাটি হয়। আর এই জনসভায় উল্লেখযোগ্য ভাবে কয়েক হাজার মানুষ উপস্থিত হয়েছিলেন। মহিলাদের উপস্থিতি চোখে পড়ার মত। দলীয় ঝান্ডা হাতে হাজারো মানুষ এদিন মিছিল করে দলে দলে সভায় যোগ দিয়েছিলেন। দুপুর থেকেই সভাস্থলে মানুষ জন আসতে শুরু করেন। বেলপাহাড়ির বিভিন্ন অঞ্চল থেকে কর্মী, সমর্থক এসেছিলেন সভায় যোগ দিতে।

ঝাড়গ্রাম জেলা তৃণমূলের সভাপতি অজিত মাইতি বলেন, মানুষ আমাদের সাথে আছে। আমরাও মানুষের সাথে আছি। রাজ্য সরকার আদিবাসী মানুষ জন সহ সবার জন্য যা উন্নয়ন করেছে পঞ্চাশ বছরেও কেউ করেনি। অপপ্রচারে কোন লাভ দেবেনা। ওরা একশো দিন সময় পেলেও কিছুই করতে পারবে না। আমরা সারা বছর মানুষের সাথে আছি।

সম্পর্কিত সংবাদ