নারোড়া পাটিয়া গণহত্যা মামলায় বেকসুর খালাস মায়া কোদনানি, সাজা বহাল বাকিদের

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ

১৯শে এপ্রিল নারোড়া পাটিয়া গণহত্যা মামলায় গুজরাতের প্রাক্তন বিধায়ক তথা বিজেপি নেত্রী মায়া কোদনানিকে বেকসুর ঘোষণা করল গুজরাত হাইকোর্ট। এদিন এই রায় শোনান বিচারপতি হর্ষ দেবানি এবং বিচারপতি এস সুপেহিয়ার ডিভিশন বেঞ্চ। তবে, অভিযুক্ত বজরঙ্গি নেতা বাবু বজরঙ্গি-সহ ৩১ জনের সাজা বহাল রেখেছে আদালত।

উল্লেখ্য, ২০০২ সালে ২৮শে ফেব্রুয়ারি আমেদাবাদে নারোড়া গ্রামে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ১১ জনকে নৃশংসভাবে খুন করার অভিযোগ ওঠে চিকিৎসক মায়া কোদনানির বিরুদ্ধে। এছাড়া সে সময় একাধিক হিংসায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের কয়েকশো মানুষ মারা যায়। এই ঘটনায় ২০১২ সালের অগস্টে সিটের (বিশেষ তদন্তকারী দল) দায়ের করা মামলায় জড়িত থাকা বাবু বজরঙ্গি-সহ ৩২ জনকে দোষী সাব্যস্ত করে আদালত। মায়া কোদনানিকে ২৮ বছর এবং বাবু বজরঙ্গিকে আজীবন কারাদণ্ড শোনায় বিশেষ আদালত।

সম্প্রতি এই মামলায় সাক্ষ্য দিয়েছেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহও। সে সময় প্রত্যাশা মতোই কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে মায়া কোদনানির পক্ষে সাক্ষ্য দিয়েছিলেন অমিত শাহ। তিনি বলেছিলেন, ঘটনার সময় কোদনানি ওই এলাকায় ছিলেন না, সে সময় তিনি বিধানসভায় এবং পরে শোলা সিভিল হাসপাতালে ছিলেন।

সম্পর্কিত সংবাদ