প্রেমিক প্রেমিকার সম্পর্কের টানাপোড়েনে আত্মঘাতী প্রেমিক

Share Bengal Today's News
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শান্তনু বিশ্বাস, হাবড়া:

ভালোবাসা পাপ নয়। তবে ভালোবাসার মধ্যে অপমান, ক্ষোভ অনেকেই মেনে নিতে পারেন না। ঠিক এই অপমান ও ক্ষোভের জেরে প্রান হারালেন হাবড়া থানার অন্তর্গত মানিকতলা বিদ্যাসাগর পল্লী এলাকার এক যুবক। মৃতের নাম সৌরভ মল্লিক (২১)। মূলত প্রেমিকার সাথে সম্পর্ক বিচ্ছেদ এবং প্রেমিকার অন্য কারোর সাথে সম্পর্ক গড়ে ওঠার ঘটনায় আত্মঘাতী হন সৌরভ মল্লিক।

স্থানীয় সুত্রে খবর, ৩ বছর ধরে হাবড়া থানার অন্তর্গত মানিকতলা বিদ্যাসাগর পল্লী এলাকার স্থানীয় এক মেয়ের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল সৌরভ মল্লিকের। এমনকি তারা একসাথে সংসার গড়ারও স্বপ্ন দেখেন বলে দাবী জানায় মৃতের বন্ধুরা। এছাড়া তারা আরও দাবী করেন, বিগত ৪দিন ধরে সৌরভ মানসিক অশান্তিতে ভুগছিল। কারন তার প্রেমিকার জীবনে দ্বিতীয় ব্যাক্তির প্রবেশ ঘটেছে সেই খবর জানতে পেরে গেছিল সৌরভ। সেই ঘটনা নিয়ে গত ৩ দিন আগে অশোকনগর স্টেশনে প্রেমিকার সাথে সৌরভের অশান্তি হয় এবং মেয়েটির ফোন কেড়ে নিয়ে তাকে চড়ও মারে বলে জানান। এরপর
প্রেমিকা ঘটনার কথা বাড়িতে গিয়ে জানালে মেয়েটির পরিবার থেকে সৌরভের নামে হাবড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করে এবং প্রেমিকার বাবা সৌরভকে ভয় দেখায় নানা ভাবে, হুমকিও দেয়। মূলত এই ঘটনার দরুন সম্প্রতি সৌরভ আত্মহত্যাও চেষ্টা করে কিন্তু বন্ধুদের চেষ্টায় সে যাত্রায় বেঁচে যায় সৌরভ। তবে তারপর থেকে সব সময় মন মরা হয়ে থাকতো সৌরভ। এরপর ১৭ই এপ্রিল সে আত্মহত্যা করে।

পারিবারিক সুত্রে খবর, ১৭ই এপ্রিল দুপুরে ভাত খেয়ে নিজের ঘরে ঘুমোতে যায় সৌরভ। পরে তাকে ডাকতে গেলে দেখতে পান পাখার সাথে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে সে। এরপর সাথে সাথে স্থানীয় বাসিন্দাদের সাহায্যে হাবড়া হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ১৮ই এপ্রিল ময়নাতদন্তের জন্য দেহ হাসপাতালে পাঠানো হবে। তবে এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

সম্পর্কিত সংবাদ