30 C
Kolkata
Thursday, April 18, 2024
spot_img

পাওনা টাকা আদায় করতে গিয়ে শার্শায় খুন এক সিএন্ডএফ কর্মচারী

 

মোঃ রাসেল ইসলাম,বেনাপোল(যশোর)প্রতিনিধিঃ যশোরের শার্শায় পাওনা টাকা নিতে আসায় পাওনাদারকে ভাড়াটে কিলার দ্বারা হত্যা করল দেনাদারেরা। ঘটনাটি ঘটেছে বাংলাদেশের যশোরের শার্শা উপজেলার কাজীরবেড় গ্রামে। বৃহস্পতিবার ভোররাতে কাজীরবেড় গ্রামের একটি কলাবাগান থেকে সিএন্ডএফ কর্মচারীর বস্তাবন্ধী মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সিএন্ডএফ কর্মচারী জাহিদুল ইসলাম জাহিদ (৩২) বেনাপোলের নারায়নপুর গ্রামের আব্দুর জব্বার তরফদারের ছেলে এবং সেজুতি এন্টারপ্রাইজের ম্যানেজার।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, জাহিদুল ইসলাম জাহিদ (৩২) বিদেশ যাওয়ার জন্য ৪ লাখ টাকা দেয় ঝড়ু দালালের স্ত্রী বিউটি খাতুনকে। পরে বিদেশ না পাঠিয়ে তাল বাহনা শুরু করে। এ ঘটনায় সর্বশেষ বুধবার রাতে টাকা দেওয়ার কথা বলে বাড়ীতে ডেকে নেয় জাহিদকে। পূর্ব পরিকল্পিতভাবে বিউটি যশোর থেকে ৪জন ভাড়াটে কিলার এনে বাসায় সাউন্ডবক্সে গানবাজনা শুনতে থাকে। পরে জাহিদকে বাথরুমে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে দেহটি বস্তাবন্ধী করে পাশের একটি কলাবাগানে ফেলে দেয়। জাহিদের বাড়ীর লোকজন খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে বিউটির বাসায় এসে জানতে চাইলে লাইট অফ করে দিয়ে বলে বাড়ীতে সে আসেনি। ঘটনাটি সন্দেহ হলে শার্শা থানা পুলিশকে অবহিত করে। এরপর শার্শা থানার পুলিশ এসে জিজ্ঞাসাবাদে জানতে পারে তাকে খুন করা হয়েছে। পুলিশ দেহটি উদ্ধার করেছে। এ খুনের ঘটনায় শার্শা থানা পুলিশ জড়িত থাকার অপরাধে ৫ জনকে আটক করেছে। আটক কৃতরা হল ঝড়–ও স্ত্রী বিউটি খাতুন (৪৭), মেয়ে সুমী খাতুন (২৯), মুক্তার আলীর স্ত্রী রহিমা বেগম (৬৫), খালিদের স্ত্রী ফেরদৌসী (৩৭) ও ছেলে আল-আমিন (১৮)। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ খুনের বিভিন্ন অস্ত্র উদ্ধার করেছে।

শার্শা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এম মশিউর রহমান বলেন, প্রাথমিক ভাবে জানতে পেরেছি তারা ভাড়াটে কিলার দ্বারা সিএন্ডএফ কর্মচারী জাহিদুল ইসলাম জাহিদকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। আমরা ৫জনকে আটক করেছি এবং অন্যান্যদের আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। লাশটি ময়না তদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Related Articles

Stay Connected

17,141FansLike
3,912FollowersFollow
21,000SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

Latest Articles