শুল্ক দফতরের হেনস্থার দাবীতে প্রেট্রাপোলে রপ্তানি বন্ধ

শুল্ক দফতরের হেনস্থার দাবীতে প্রেট্রাপোলে রপ্তানি বন্ধ

শান্তনু বিশ্বাস, প্রেট্রাপোল :

ভারতের আর বাংলাদেশের একমাএ রপ্তানী স্থান হল প্রেট্রাপোল। আর এই পেট্রাপোল সীমান্তে দীর্ঘদিন ধরে নানা অসুবিধের মধ্যে চলছে আমদানি ও রপ্তানি । ২৭ শে জানুয়ারি ফের প্রেট্রাপোলে রপ্তানি বন্ধ করল বিভিন্ন ব্যাবসায়ী ও ক্লিয়ারিং এজেন্ট। অভিযোগ, কাগজপত্র চেক করার নামে শুল্ক দপ্তর বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করছে।

উল্লেখ্য পূর্বেও বিভিন্ন রকম হেনস্তা কারনে কর্ম সূচি বন্ধ রাখা হয়েছিল। আর ঠিক একইরকম ভাবে ২৭ শে জানুয়ারি ফের ভারত ও বাংলাদেশের রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়া হয় ব্যাবসায়ী ও ক্লিয়ারিং এজেন্টের পক্ষ থেকে।  অভিযোগ, কাগজপত্র চেক করার নামে শুল্ক দপ্তর বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করছে। এবং নতুন করে দুরকম কার্ডের ব্যবস্থা করছে যার ফলে এই কাজের সাথে জড়িত কয়েকশো যুবক কর্মহীন হয়ে পরছে। যাদের কাছে কার্ড নেই তারা কাজ করতে পারবেনা বলে জানিয়েছে শুল্ক দপ্তর। 

এমনকি শুল্ক দপ্তরে পক্ষ থেকে জানানো হয়, আইনগত ভাবেই সব করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে ক্লিয়ারিং সম্পাদক বলেন, তাদের সাথে কথা না বলে হটকারি এই সির্ধান্ত যার ফলে কয়েকশো যুবক বেকার হয়ে যাচ্ছে। মূলত এর জেরেই এদিন রপ্তানি বন্ধ করে তাঁরা আন্দোলন করছে বলে জানান তিনি।  প্রসঙ্গগত
প্রেট্রাপোলে রপ্তানি বন্ধ হওয়ায় ভারত ও বাংলাদেশের রপ্তানি ক্ষেত্রে কয়েক লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়।

 

You May Share This
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *