দেড়শ বছর পরে একই আকাশে দেখতে পাওয়া যাবে চাঁদের তিন রূপ!

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডে:

চলতি মাসের ৩১ তারিখ ভারতের আকাশে চাঁদের তিন রূপ দেখা যাবে বলে জানান কেরল সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি মিউজিয়াম। পাশাপাশি (কেএসটিএম)-এর প্রিয়দর্শিনী প্ল্যানেটোরিয়াম-এর তরফ থেকে সাধারণ মানুষের জন্য টেলিস্কোপের বন্দোবস্তও করা হচ্ছে।

মূলত ‘সুপার মুন’, ‘ব্লু মুন’ বা ‘একলিপ্স’ এই ৩ টি শব্দ প্রায় সকলেরই চেনা। কিন্তু একইসঙ্গে, একইদিনে চাঁদের এত রূপ বেশ চমকপ্রদ একটি ব্যাপার। এমনই এক অভিনব ঘটনার জন্য তৈরি হচ্ছে ভারতের তিরুঅনন্তপুরম। উল্লেখ্য ৩১ শে জানুয়ারি পর পর ঘটবে কয়েকটি ঘটনা। অর্থাৎ উক্তদিন বিকেল ৪:২১ থেকে সন্ধে ৭:৩৭ পর্যন্ত— আংশিক চন্দ্রগ্রহণ। পূর্ণচন্দ্র আবারও দেখা যাবে রাত ৮:৩১ থেকে। এরপর আসবে সুপারমুন- যখন চন্দ্র ও পৃথিবীর দূরত্ব সব থেকে কম হয়ে যায়। এমনিতে দূরত্ব ৩৮৪,৪০০ কিলোমিটার হলেও, এই সময়ে তা কমে হয়ে যাবে মোটামুটি ৩৫৬ কিলোমিটার। ব্লু মুন— না! চাঁদের রং মোটেও নীল হয়ে যায় না। একই মাসে ২ বার পূর্ণচন্দ্র হলে, দ্বিতীয় পূর্ণিমার চাঁদকে ব্লু মুন বলা হয়। জানুয়ারিতে ২ টি পূর্ণিমা পড়েছে।

প্রসঙ্গগত ২০১৮ সালের ৩১ শে জানুয়ারি, একই সঙ্গে চাঁদের তিনটি রূপ দেখা যাবে। এ দিন, চাঁদের রঙে লালচে বা কমলা আভা দেখা যাবে বলে জানিয়েছেন কেএসটিএম-এর অধিকর্তা অরুল জেরাল্ড প্রকাশ। যে কারণে, সেদিন চাঁদের নাম হবে ‘ব্লাড মুন’। আর এমন ঘটনা শেষবার ঘটেছিল ১৮৬৬ সালে।

সম্পর্কিত সংবাদ