কোন ম্যাচ না খেলে টি ২০ তে ঢুকে পড়লেন মন্ত্রীর ছেলে

Share Bengal Today's News
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডে:

বড় বাবার ছেলে-মেয়ে হলে কী না সম্ভব! রাজ্যস্তর হোক কিংবা জাতীয় দল; সকল স্থানেই নিজেদের সামিল করা যায়। রাজ্যের দলে সুযোগ পেতে কত পরিশ্রমই না করতে হয় খেলোয়াড়দের। বছরের পর বছর জেলা এবং ক্লাবস্তরে ভাল পারফরম্যান্সের পরেই রাজ্যের দলে সুযোগ পাওয়া যায় ৷ কিন্তু বড়ো বাবার ছেলেদের যে সেটার প্রয়োজন নেই, তা আরও একবার প্রমাণ হয়ে গেল ৷

একটি ম্যাচেও না খেলে দিল্লির টি ২০ টিমে সরাসরি ঢুকে পড়লেন বিহারের নেতার ছেলে। যার নাম পাপ্পু যাদব৷ অবশ্য তাঁর আসল নাম রাজেশ রঞ্জন ৷ তারই ছেলে সার্থক রঞ্জনের দিল্লির দলে নির্বাচনকে ঘিরেই উঠছে প্রশ্ন ? কারণ কোনও উল্লেখযোগ্য পারফরম্যান্স না করেই সরাসরি দিল্লির দলে সুযোগ পেয়েছেন তিনি।

এমনকি সার্থকের জন্য রিজার্ভে বসতে হয়েছে অনূর্ধ্ব-২৩ এ সর্বোচ্চ রান করা হিতেন দালালকে ৷ পাপ্পু যাদবের স্ত্রী রঞ্জিত রঞ্জন কংগ্রেসের সাংসদ। তাঁদেরই ছেলে সার্থক রঞ্জন।

প্রসঙ্গগত সৈয়দ মুস্তাক আলি টি২০-র জন্য দিল্লি দলে গতবছরও সুযোগ পেয়েছিলেন সার্থক ৷ তিনটি ম্যাচ খেলে সবমিলিয়ে মাত্র ১০ রান করেছিলেন তিনি ৷ আর তাই রঞ্জি ট্রফি নির্বাচনের সময় তিনি নিজেই টুর্নামেন্ট থেকে নাম তুলে নিয়েছিলেন। তার কারণ হিসাবে জানা যায়, তখন সার্থকের বডি বিল্ডিং করার ইচ্ছে হয়েছিল ৷ কিন্তু এবার আবার বোর্ডের টি২০ টুর্নামেন্টে খেলতে তার ছেলে প্রস্তুত বলে ডিডিসিএ-কে জানান সার্থকের মা রঞ্জিত রঞ্জন ৷ তার সেই আর্জির প্রায় সাথে সাথেই দিল্লির দলে জায়গা হয় তার ৷ আর তাই সার্থক দলে সুযোগ পাওয়ায় রিজার্ভে থাকতে হয়েছে সিকে নাইডু ট্রফিতে ৪৬৮ রান করা হিতেন দালালকে ৷ ফলে স্বভাবতই সার্থকের নির্বাচনকে ঘিরেই এখন উঠছে প্রশ্ন ৷

সম্পর্কিত সংবাদ