নির্বাচন কমিশনারকে পঞ্চায়েত মনোনয়নে সংঘর্ষের ঘটনায় রাজ্যপালের তলব, প্রশ্নে নিরপেক্ষতা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, কলকাতাঃ

পঞ্চায়েত নির্বাচনের বিজ্ঞপ্তি জারি হওয়ার পর মনোনয়ন দাখিল শুরু হতেই বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ শুরু হয়েছে জেলায় জেলায়। প্রথম দুদিনেই নানা ঘটনাপ্রবাহে রক্ত ঝরেছে। এদিন রাজ্যপালের কাছে গিয়ে বিজেপি দরবার করে। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ আর্জি জানান, মনোনয়ন জমা দেওয়া শুরু হতেই বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, হুগলি, দক্ষিণ ২৪ পরগনা-সহ বিভিন্ন জেলায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে। বিজেপি প্রার্থীদের মনোনয়ন জমা দিতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। এর বিরুদ্ধে তিনি প্রতিকার চান রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধানের কাছে।

এদিন দিলীপবাবু রাজ্যপালের কাছে স্মারকলিপি দেওয়ার পর বাইরে বেরিয়ে এসে বলেন, আমরা এবার দলবল নিয়ে মনোনয়ন জমা দেব, পঞ্চায়েত ভোটে পাল্টা মারব। তাতে যদি শ্মশানে যায় যাবে। কিন্তু তাঁদের কেউ আটকাতে পারবে না।

এই অবস্থায় বিজেপির দরবারের পর রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী তলব করলেন রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক অমরেন্দ্রকুমার সিংকে। আর এই প্রসঙ্গে ফের একবার রাজ্যপালের রাজনৈতিক নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিলেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

অপরদিকে তারই পাল্টা দিয়েছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, বিজেপি রাজ্য সভাপতির এই ধরনের মন্তব্যে উত্তেজনা আরও বাড়িয়ে তুলবে। বিজেপি উসকানি দিয়ে হিংসা ছড়ানোর চেষ্টা করছে।

পার্থ চট্টোপাধ্যায় এদিন অভিযোগ করেন, রাজ্যপাল শুধু বিজেপির কথাই শুনছেন। তাঁর নিরপেক্ষতা নিয়ে তাই বারবার প্রশ্ন উঠে পড়ছে। একটা রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান হয়ে তিনি এই পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করতে পারেন না বলে অভিমত তৃণমূলের। রাজ্যের মানুষ রাজ্যপালের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন বলে দাবি করেন পার্থবাবু।

সম্পর্কিত সংবাদ