বকেয়া টাকা চাইতে গিয়ে মার খেল মালিকের হাতে কর্মচারী, ঘটনাস্থলে মৃত্যু হল কর্মচারীর বাবার

Spread the love
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

শান্তনু বিশ্বাস, আশোকনগরঃ কাজের বকেয়া ২০০ টাকা চাইতে গিয়ে মদের আসরে মার খেল মালিকের হাতে কর্মচারী লিটন বারুই। ছেলে কে বাঁচাতে এসে মদ্যপদের হাতে মৃত্যু হয় গোকুল বারুই (৬৩) পেশায় ভ্যান চালক বাবার। ঘটনাটি ঘটেছে, ১৬ই সেপ্টেম্বর রাত ১০টার সময় উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগর থানার অন্তরর্গত নবজীবনপল্লি এলাকায়। ঘটনার পর রাতে ব্যপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয় এলাকায়। ঘটনার খবর পেয়ে হাবড়া ও অশোকনগর থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী এসে পৌছয় ঘটনাস্থলে এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। অভিযুক্ত সেলাই কারখানার মালিক সুভাষ বালা স্থানীয় রাজনৈতিক প্রভাব দেখিয়ে এর আগেও বেস কিছু ঘটনা ঘটিয়েছে একাধিকবার এমনটাই দাবি স্থানীয়দের। অভিযুক্তদের মধ্যে মালিকের ভাই অরুন বালাকে পুলিশ আটক করেছে, কিন্তু কারখানার মালিক সহ আরও অভিযুক্তরা পলাতক।

অভিযুক্তদের আশ্রয় দেওয়া হয়েছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগে। ওই এলাকার এক ব্যক্তির বাড়িতে পুলিশ এক অভিযুক্তকে ধরতে গেলে বাধা দেয় একটি পরিবার। অশোকনগর থানার কর্তব্যরত আধিকারি সুজিত দাস কে ধারাল কিছু দিয়ে হাতে আঘাত করা হলে তিনি আহত হয়ে পড়েন। পরে মদতদাতা ও পুলিশে হামলার ঘটনায় পুলিশ রাতেই ওই পরিবারের ৩ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। পুলিশের উপর হামলার প্রতিবাদে আশ্রয়দাতার বাড়িতে সামান্য ভাঙচুরও করে স্থানীয়রা। ১৭ই সেপ্টেম্বর অরুন বালাকে বারাসাত আদালতে তোলা হয়।

সম্পর্কিত সংবাদ