ব্যারাকপুরে দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রীর সাহসিকতায় হাতে নাতে ধরা পড়লো মোবাইল স্ন্যাচার

ব্যারাকপুরে দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রীর সাহসিকতায় হাতে নাতে ধরা পড়লো মোবাইল স্ন্যাচার

অরিন্দম রায় চৌধুরী, ব্যারাকপুরঃ

বর্তমানে মেয়েরাও যে সাহসী ও বলিষ্ট পদক্ষেপ নিতে পিছপা হয়ে না তারই প্রমাণ মিললো ব্যারাকপুর চিড়িয়ামোড়ে ২রা এপ্রিল, ২০১৮ – র সকাল বেলায়। আনুমানিক বেলা ১:৩০মিনিটে ব্যারাকপুর রাষ্ট্রগুরু সুরেন্দ্রনাথ কলেজের বি.এস.সি -র দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী সঞ্চারী সাহা প্রতি দিনের মতই কলেজ থেকে ৮৫ নং বাসে নিজের বাড়ীর উদ্যেশে রওনা দেয়।

ব্যারাকপুর চিরিয়ামোড়ের কাছে হটাৎ তার সহযাত্রি তাকে বলে তার পকেট থেকে তার মোবাইল ফোন একজন তুলে নিয়ে নেমে যাচ্ছে। সম্বিৎ ফিরে পায় মেয়েটি ও সঙ্গে সঙ্গে বাস থেকে নেমে সেই লোকটির পিছু ধাওয়া করে ও ধরেও ফেলে। প্রথমে লোকটি না মানলেও সঞ্চারী সাহস দেখিয়ে তার জামার নিচে পেটের কাছ থেকে নিজের মোবাইলটি বের করে আনে, এবং লোকটিকে ধরে প্রথমে ব্যারাকপুর সাব ট্র্যাফিক গার্ডের অফিসার ইন চার্জ বিজয় ঘোষ ও ট্র্যাফিক গার্ডের উপ সহকারী পরিদর্শক কাঞ্চন বিস্বাসের হাতে তুলে দেয় পরে টিটাগড় থানার পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ দিলে লোকটিকে টিটাগর থানা নিজেদের হেপাজতে নেয়।

[espro-slider id=3215]

যে সাহসের পরিচয় একটি ছোট্ট কলেজের মেয়ে হয়ে সঞ্চারী দিলো তা দেখে উপস্থিত সকলেই অভিভূত তা বলাই বাহুল্য কারণ অনেকেই মুখে অভিযোগ জানালেও তা লিপিবদ্ধ করতে রাজি থাকে না আর সেই সুযোগেই এই ধরনের অপরাধীরা আইনকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে আবার তাদের অপকর্ম চালিয়ে যায় যা এই ক্ষেত্রে আর হলো না। সঞ্চারীর এহেন সাহসিকতার কাজে ঘটনাস্থলে উপস্থিত সকলেই তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ সকলেই একসুরে বলছে “ব্রাভো” সঞ্চারী।

You May Share This
  • 515
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    515
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

[mwrcounter start=98529386]