২৪ ঘণ্টা বাংলাদেশি দূতাবাস খোলা রাখার নির্দেশ

মিজান রহমান, ঢাকাঃ বিদেশে বাংলাদেশি দূতাবাসগুলো শ্রমিকবান্ধব করতে সেগুলো ২৪ ঘণ্টায় খোলা রাখার নির্দেশ দিয়েছেন বাংলাদেশ পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। ১৯ শে জানুয়ারি শনিবার রাজধানীর বিএফডিসিতে ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির আয়োজনে ‘ইউসিবি পাবলিক পার্লামেন্ট’ শীর্ষক ছায়া সংসদ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ নির্দেশনা দেন। এম এ মান্নান বলেন, আমি জানি বিদেশে আমার শ্রমিকেরা খুব সহজে দূতাবাসের সহায়তা পান না। এটা বন্ধ হতে হবে। আমি বলছি, দূতাবাসগুলো ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখতে হবে। শ্রমিকবান্ধব কর্মকর্তাদের দূতাবাসে নিয়োগ দিতে হবে। শ্রমবাজার ও রপ্তানি বৃদ্ধিতে দূতাবাসগুলোকে প্রধান ভূমিকা পালন করতে হবে। মন্ত্রী আরো…

বাংলাদেশে ঢুকে বাড়িতে হামলা করেছে বিএসএফ

  মিজান রহমান, ঢাকাঃ লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী স্থলবন্দর সীমান্ত পার হয়ে এক বাংলাদেশির বাড়িতে হামলা চালিয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ’র দুই সদস্য। পরে স্থানীয়দের ধাওয়া খেয়ে একটি শর্টগান ফেলে তারা পালিয়ে গেছে। ১৮ই জানুয়ারি শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে পাটগ্রামের বুড়িমারী ইউনিয়নের মুংলিবাড়ী সীমান্তে ৮৪১ নম্বর মেইন পিলারের ৬ নম্বর সাব-পিলারের কাছাকাছি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তবে বিএসএফ’র ওই সদস্যদের নাম জানা যায়নি। রংপুর-৬১ বিজিবি (বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ) ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্নেল মোস্তাফিজুর রহমান এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। স্থানীয় ও বিজিবি সূত্র জানা যায়, এ ঘটনায় সীমান্তে উত্তেজনা…

বাংলাদেশের মানুষের দৃষ্টি ফেরাতে আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসব: মির্জা ফখরুল

  মিজান রহমান, ঢাকাঃ মানুষের দৃষ্টিকে অন্য দিকে সরানোর জন্য আওয়ামী লীগ বিজয় উৎসব পালন করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ভোট ডাকাতি করে যে নৈতিক পরাজয় হয়েছে তা থেকে মানুষের দৃষ্টিকে অন্য দিকে সরানোর জন্য আওয়ামী লীগ বিজয় উৎসব পালন করছে। ৩০শে ডিসেম্বর গণতন্ত্রের পরাজয় হয়েছে। সঙ্গে আওয়ামী লীগের সবচেয়ে বড় পরাজয় হয়েছে। কারণ তারা জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ১৯শে জানুয়ারি শনিবার সকালে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৮৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে তার সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে এসব কথা বলেন বিএনপি মহাসচিব। ফখরুল বলেন,…

বাংলাদেশের রেলক্রসিং এখন মরণ ফাঁদ

মিজান রহমান, ঢাকাঃ বাংলাদেশের রেলক্রসিংগুলোতে নেই পর্যাপ্ত লোকবল, তাই অহরহ দুর্ঘটনা ঘটছে। ক্রসিংগুলো এখন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। তিনটি আন্তঃনগর ট্রেন সহ ২১টি ট্রেন প্রতিদিনই চলাচল করে রংপুরের কাউনিয়া উপজেলা রেল জংশন হয়ে। মানুষজন নিরাপদ ভ্রমণের জন্য ট্রেনে যাতায়াত করলেও এই জংশনের আটটি রেলক্রসিং এখন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। প্রতিনিয়তই ঘটছে দুর্ঘটনা। সম্প্রতি কামরুজ্জামান রাজা নামের এক ব্যক্তি ট্রেনের ধাক্কায় নিহত হওয়ার পরে অরক্ষিত রেলক্রসিং গেটম্যান নিয়োগের দাবি জানিয়েছে স্থানীয় সচেতন মহল। স্থানীয়রা জানান, কাউনিয়া উপজেলার আটটি রেলক্রসিং দিয়ে দিন-রাত মানুষ চলাচল করলেও নেই রেল কর্তৃপক্ষের কোনো পাহারাদার বা গেটম্যান।…

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার সব পথেই ছিল উৎসবের আমেজ

  মিজান রহমান, ঢাকাঃ জয়বাংলা শ্লোগান আর ঢাক-ঢোলের বাদ্যে শুধু সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নয়, রাজধানী ঢাকার সব পথেই ছিল ১৯শে জানুয়ারি শনিবার উৎসবের আমেজ। একাদশ সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয় উদযাপনে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসবকে কেন্দ্র করে রাজধানী ঢাকায় এ উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়। শনিবার বিকেলের এই জনসভায় যোগ দিতে সকাল থেকেই বিভিন্ন স্থান থেকে মিছিল নিয়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আসতে শুরু করেন দলটির নেতা-কর্মী-সমর্থকরা। অনুষ্ঠানের অনেক আগেই কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে যায় অনুষ্ঠানস্থল। রাজধানীর আশপাশের জেলাগুলো থেকেও আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা সমাবেশে যোগ দেন। লাল-সবুজ টি-শার্ট ও…

বাংলাদেশ হবে উন্নত-সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ: শেখ হাসিনা

  মিজান রহমান, ঢাকাঃ একাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ যে নিরঙ্কুশ জয় পেয়েছে, জনগণের আকাশচুম্বী প্রত্যাশা পূরণ করে সেই জয় ধরে রাখা কঠিন কাজ বলে দলের নেতা-কর্মীদের সতর্ক করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, বাংলাদেশের লোকজন বারবার ভোট দিয়ে আমাদের সেবা করার সুযোগ দিয়েছেন। বাংলাদেশ হবে উন্নত-সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ। এ লক্ষ্য বাস্তবায়ন করতে হলে দেশকে দুর্নীতি ও মাদকমুক্ত করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ নিয়ে দেশ গড়ে তুলতে তিনি সব শ্রেণি-পেশার মানুষের সহযোগিতা চান। ১৯ †k জানুয়ারি শনিবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয় উদযাপনে…

ব্রিগেড থেকে ফেরার পথে দুর্ঘটনাগ্রস্ত বাস

  সমাপ্তি রায়, হাওড়াঃ ব্রিগেড থেকে ফেরার পথে ডোমজুড়ের জগৎবল্লভপাড়ার কাছে দক্ষিণ বাড়ি এলাকায় একটি বাস উল্টে যায়। ঘটনার দরুন আহত হন ৩৩জন যাত্রী। পুলিশ সূত্রের খবর, এদিন বাসটি ব্রিগেড থেকে হুগলির জাঙ্গিপাড়াতে ফিরছিল। সেই সময় গাড়ির চালক নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার পাশের নয়ানা জুলির পাশের গাছে সরাসরি ধাক্কা মারে। তবে ঘটনার জেরে এখনও পর্যন্ত নিহতের কোন খবর নেই কিন্তু ৩৩ জন যাত্রী আহত হয়। আহতদের সাথে সাথে ডোমজুড় হসপিটালে নিয়ে যাওয়া হয় যার মধ্যে বেশ ৯ জনকে কলকাতার এনআরএস হাসপাতালে রেফার করা হয়।

ডোমজুড়ে উদ্বোধিত হল ‘ডোমজুড় বই মেলা ২০১৯’

  মনি শঙ্কর বিশ্বাস, হাওড়াঃ এদিন ডোমজুড়ে উদ্বোধন করা হয় ডোমজুড় সম্প্রীতির আয়োজনে ১৪তম ডোমজুড় বই মেলা। এদিন এই বইমেলা উদ্বোধন করেন প্রধান অথিতি রুদ্র প্রসাদ সেনগুপ্ত। এছাড়াও মেলা প্রাঙ্গণে উপস্থিত ছিলেন সাহিত্যিক শ্রী ষষ্ঠীপদ চট্টোপাধ্যায়, সাহিত্যিক উল্লাস মল্লিক সহ আরো অনেক বিশিষ্ট ব্যক্তিগণ। এবারের এই বইমেলা আয়োজকদের তরফ থেকে জানানো হয়, বই মেলায় ৫০ টি স্টল রয়েছে। প্রতি বছরের মতো এবারও মেলা প্রাঙ্গনে থাকবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান তথা আবৃত্তি, ও আলোচনা সভা। এই বই মেলায় চলবে আগামী ২৭শে জানুয়ারী পর্যন্ত।

আসতে পারে প্রধানমন্ত্রী, মাঠ পরিদর্শন বিজেপি নেতৃত্বের

  জয় চক্রবর্তী, গাইঘাটাঃ ব্রিগেডের দিনে বনগাঁ লোকসভা এলাকায় প্রধানমন্ত্রীর সভার জন্য মাঠ পরিদর্শন বিজেপি নেতৃত্বের। মতুয়া ধর্মের পিঠস্থান গাইঘাটার ঠাকুর নগরে সভা করতে আসতে পারেন প্রধানমন্ত্রী। সে কারনে দলীয় নেতারা ঠাকুর নগর এলাকায় সভাস্থল খোঁজবার কাজ শুরু করেন ও তারা ঠাকুরবাড়ির পাশের একটি মাঠ ঘুরে দেখেন। প্রতাপ বাবু বলেন, ” বনগাঁ লোকসভা এলাকায় প্রধানমন্ত্রীর সভা করার কথা আছে। তাই আমরা ঠাকুর বাড়ি এলাকায় ঘুরে গেলাম। প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়ীত্বে থাকা অফিসারেরা পরবর্তিতে সিদ্ধান্ত নেবেন।”

জনপ্রিয় সাহিত্যিক অতীন বন্দ্যোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে শোকতপ্ত রাজ্য

ওয়েব ডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ চলে গেলেন কিংবদন্তি সাহিত্যিক অতীন বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৪। শুক্রবার সকালে তাঁর সেরিব্রাল অ্যাটাক হয়। এর পরই তিনি কোমায় চলে যান। মাঝেরহাটে কলকাতা পোর্ট ট্রাস্টের হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানেই আজ দুপুরে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। অতীন বন্দ্যোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে বাংলার সাহিত্য তথা সাংস্কৃতিক জগতে নেমে এসেছে শোকের কালো ছায়া। তাঁর অসামান্য সব গল্প-উপন্যাস বাংলা সাহিত্যের অমূল্য সম্পদ হয়ে থাকবে। বিশেষ করে ‘নীলকণ্ঠ পাখির খোঁজে’, ‘ঈশ্বরের বাগান’, ‘মানুষের ঘরবাড়ি’, ‘অলৌকিক জলযান’-এ মতো উপন্যাসের জন্য মননশীল পাঠকের কাছে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। বাংলাদেশের (সেই সময়ের পূর্ববঙ্গ)…