ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য ৪ দিন বন্ধ থাকার পর অবশেষে চালু হলো

জয় চক্রবর্তী, বনগাঁঃ গাড়ির চালককে মারধর, গাড়িতে আগুন লেগে যাওয়া, চালকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার, বাংলাদেশের বিরুদ্ধে এমনই একাধিক অভিযোগ এনে পেট্রাপোল সীমান্তে চার দিন ধরে বন্ধ ছিল আমদানী রপ্তানি। গাড়ির মালিক সংগঠন, শ্রমিক সংগঠন, আমদানী-রপ্তানিকারী সংগঠন সকলে মিলে অনির্দিষ্ট কালের জন্য আমদানী-রপ্তানি বন্ধ রেখে ছিল৷ পর পর ২ দিন বাংলাদেশ ও ভারতের ব্যাবসায়িক ও প্রশাসনিক বৈঠক হয়। ২৫শে সেপ্টেম্বর দুপুরে বনগাঁ পৌরসভার প্রধান সংকর আঢ্য, ছয়ঘড়িয়া পঞ্চায়েত প্রধান প্রসেনজিৎ ঘোষ সহ ব্যবসায়ী সংগঠনের প্রতিনিধি ও বাংলাদেশে প্রতিনিধিরা ফের ভারতে বৈঠকে বসে ৷ ভারতের ১১ জন ও বাংলাদেশের ৯ জন কে নিয়ে…

বিজেপির বনধে মিশ্র সাড়া পড়ল বনগাঁ মহকুমায়

  জয় চক্রবর্তী, বনগাঁঃ বিজেপি-র ডাকা ১২ঘন্টার বন্ধে বনগাঁ রেল স্টেশনে সাড়ে সাতটা থেকে অবরোধ শুরু হয় চলে ন’টা পর্যন্ত। অবরোধ আধঘন্টা চললেও টেকনিক্যাল কারণে ট্রেন ছাড়তে দেরি হয় বলে সূত্রে খবর। পাশাপাশি সকাল সাতটা থেকে ঠাকুরনগর স্টেশন, গোবরডাঙা স্টেশন ও মসলন্দপুর স্টেশনে অবরোধ শুরু হয়। পরে জিআরপি পুলিশ ও আরপিএফ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে অবরোধকারীদের সঙ্গে কথা বলে অবরোধ তুলে দেয়। এদিন বনগাঁ স্টেশন ও গাইঘাটার বিভিন্ন এলাকায় তৃণমূল সমর্থকদের বনধ বিরোধী মিছিল করতে দেখা যায়। বাগদা বাজারে সাড়ে আটটা নাগাদ বিজেপি এবং তৃণমূল সমর্থকদের মিছিলে দুই পক্ষের মধ্যে ধাক্কাধাক্কি শুরু হয়…

পঞ্চায়েত সমিতি গঠন নিয়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে বোমাবাজী, উদ্ধার তাজা বোমা

শান্তনু বিশ্বাস, দেগঙ্গাঃ পঞ্চায়েত সমিতি গঠন নিয়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে বোমাবাজী, উদ্ধার তাজা বোমা। দেগঙ্গায় সমিতির সভাপতি হলেন জনাব মফিদুল হক শাহাজি নামে এক তৃণমূল নেতা। প্রসঙ্গত, দেগঙ্গায় ছিল সিপিএমের লাল দূর্গ। সিপিএমের সেই লাল দূর্গ তৃণমূলের উন্নয়নের কাছে হার মানে। ব্যপক হারে সিপিএমকে পরাস্ত করে তৃণমূল জয় লাভ করে। তৃণমূল জয়লাভ করার পর, কে হবে পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি? তাই নিয়ে এলাকায় একটা চাপা উত্তেজনা ছিল। তৃণমূল বিধায়ক রহিমা মণ্ডল ও দেগঙ্গা ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি মিন্টু সাহাজী এর আগেও খবরের শিরোনামে ছিল। অভিযোগ, সোমবার সকালে যখন টান-টান উত্তেজনার…

অশোকনগরে দেনার দায়ে আত্মহত্যা

শান্তনু বিশ্বাস, অশোকনগরঃ দেনার দায়ে বাড়ির সামনের একটি গাছে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হলেন এক ব্যাক্তি। ঘটনাটি ঘটে অশোকনগর থানার অন্তরগর্ত দোগাছা কুমারডাঙ্গা এলাকায়। বছর ৫৩-এর সুনীল ঘোষের পরিবারের দাবী, সুনীল ঘোষ পেশায় চাষী। দীর্ঘদিন ধরে শারীরিক রোগ ভোগে বাড়িতে ছিলেন। ফলে বেশ কিছু দেনা সংস্থা থেকে মোটা অঙ্কের লোন নেয় সে। পাশাপাশি দূর সম্পর্কের আত্মীয় দেগঙ্গা থানার অন্তরগর্ত রামপুরের বাসিন্দা পিন্টু ঘোষের কাছ থেকে লক্ষাধিক টাকা ধার নেয়। কিছুদিন যাবদ সবাই টাকার চাপ দিচ্ছিল, ফলে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন তিনি। সুনীল ঘোষের ৩ মেয়ে ও স্ত্রী নিয়ে সংসার। সকালে রোজকার…

রাজনৈতিক বিরোধিতার প্রশাসনিক তৎপরতার নির্দেশ

রাজীব মুখার্জী, নবান্ন, হাওড়াঃ বিগত ১০ বছরের মধ্যে এভাবে রাজ্য সরকার বনধের বিরোধিতায় নেমেছেন এ ঘটনাকে আমরা বিরল আমরা বলতেই পারি এই বাংলায়। ২৪শে সেপ্টেম্বর, সোমবার রাজ্য সরকারের অর্থদপ্তরের অডিট বিভাগের যে বিজ্ঞপ্তি বেরিয়েছে, তা থেকে একটি বিষয় জলের মত পরিষ্কার হয়ে যাচ্ছে। মুখ্য মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তার সরকার যেকোনও মূল্যে বিজেপির ডাকা বনধ আটকাতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন। তাই কর্মীদের সতর্ক করতে গতকাল নবান্নে অর্থসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী তার সাক্ষর করা বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ মতো। এই বিজ্ঞপ্তি পরে বোঝা যাচ্ছে রাজনৈতিক, প্রশাসনিক ও সাংগঠনিক ভাবে এই বনধের বিরোধিতা…

পেটের তাগিদে গাছে উঠে বিদ‍্যুৎস্পৃষ্ঠ হয়ে মৃত্যু, আঙ্গুল উঠেছে ইলেকট্রিক সিটি বোর্ডের দিকে

অমিয় দে, দক্ষিন ২৪ পরগনাঃ রোজকারের মতো ২৪শে সেপ্টেম্বর সোমবারও পেটের তাগিদে সকাল সকাল বাড়ি থেকে বেরোয় অশোক ঘড়ই নামে এক ব‍্যাক্তি রোজগারের জন্য। কিন্তু তার আর জলজ্যান্ত বাড়ি ফেরা হল না। হত দরিদ্র খেটে খাওয়া পরিবারের মানুষ গুলো একদিন কাজে না বেড়োলে যে পরিবারের সদস্যদের না খেয়ে কাটাতে হবে সারাদিন। আর নারকেল গাছে উঠে এভাবে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যে মৃত্যুর কলে ধলে পড়তে হবে তাকে, তা কেউ ভাবতেও পারেননি পরিবারের সদস্যরা। কিন্তু তার কাজতো করতেই হবে, গাছ থেকে নারকেল, ডাব, বিক্রি করে উপার্জন করাই হলো তার পেশা। কিন্তু এদিন সকালে…

এবার কাকদ্বীপ! শুরুর আগেই শেষ – নির্মীয়মান সেতু ভেঙে দুর্ঘটনা

  অমিয় দে, কাকদ্বীপঃ পোস্তা, শিলিগুড়ির পর এবার নির্মীয়মান সেতু ভাঙল কাকদ্বীপে। কাকদ্বীপের স্টিমার ঘাটের কাছে কালনাগিনী নদীর ওপর সেতুটি তৈরি হচ্ছিল। শেষ হওয়ার আগেই ভেঙে পড়ল কংক্রিটে সেতু। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত দু’বছর আগে থেকে এই সেতু তৈরির কাজ চলছে। সেতুটি কালনাগিনী নদীর উপরে তৈরী করা হচ্ছিল। মূলত কাকদ্বীপ অঞ্চলের পশ্চিম স্টিমারঘাট ও পশ্চিম গঙ্গাধরপুর এলাকার সংযোগ স্থল হিসেবে সেতুটি তৈরি করা হচ্ছিল। কাকদ্বীপে কালনাগিনী নদী গিয়ে মিশেছে মুড়িগঙ্গায়। স্থানীয় বাসিন্দারা ছাড়া প্রতিবছর লক্ষলক্ষ মানুষ যান গঙ্গাসাগরে। সবার সুবিধার জন্য প্রায় দুবছর আগে এই কালনাগিনী সেতুটির…

আজ সত্যি খুব বিপন্নতায় ভুগছে বালি খালের ওপর দিয়ে যাওয়া সেতুটি

  রাজীব মুখার্জি, কলকাতাঃ বালি হল্ট স্টেশন থেকে বেরিয়ে উত্তর অভিমুখে গেলে একটু হাঁটলেই পরে বালি খালের ওপরে একটি সেতু। এই সেতু টি বর্তমানে বালি পৌরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের মধ্যেই পরে। এর পূর্ব ইতিহাস অনেক পুরানো। বালিখালে সেই যুগে ডাকাতের প্রচন্ড উৎপাত ছিল। সেই সমস্যার সমাধানে এগিয়ে আসেন উত্তরপাড়ার তৎকালীন জমিদার জয়কৃষ্ণ মুখোপাধ্যায়। তার প্রচেষ্টায় বালি খালের উপরে প্রথম সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয় আনুমানিক ১৮৪৫ সালে। সেতুটি সর্ব সাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হয় ১৮৪৬ সালের ১৪ই ফেব্রুয়ারী। এই সেতু তৈরির জন্য জমিদার জয়কৃষ্ণ নিজেও অর্থ দিয়েছিলেন। উত্তরপাড়ার বিশিষ্ট স্বাধীনতা…

গত ৩ দিন ধরে পেট্রাপোল সীমান্তে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ

জয় চক্রবর্তী, বনগাঁঃ বাংলাদেশে যে শ্রমিকরা লোডিং-আনলোডিং-এ কাজ করে, তাদের পাওনা গন্ডা নিয়ে সমস্যার জেরে পেট্রোল সীমান্তে আমদানি-রপ্তানি ব্যবসা বন্ধ ৷ কাস্টম ক্লিয়েরিং-এর সম্পাদক কার্ত্তিক চক্রবর্তী বলেন, বাংলাদেশের ভিতরে একটা অর্থনৈতিক শোষণ চলছে, বাংলাদেশের শ্রমিকরা একটা অর্থনৈতিক অত্যাচার চালাচ্ছে। ইন্ডিয়ান যারা গাড়ি নিয়ে এখান থেকে রপ্তানিকৃত পণ্য বাংলাদেশ নিয়ে যাচ্ছে, তাদের ওপর অর্থনৈতিক জুলুম চালাচ্ছে, দীর্ঘদিন ধরে৷ বাংলাদেশের বন্দর কর্তৃপক্ষ শুল্ক দফতর এবং ভারতীয় শুল্ক দফতরের আধিকারিকরা, এক্সপোর্ট ইমপোর্ট-এর কর্মচারী সংগঠন যৌথ ভাবে সিদ্ধান্ত নিয়ে নির্দিস্ট রেট ধার্য করে৷ কিন্তু এর পরও বাংলাদেশের শ্রমিক সংগঠন তারা সেই কর্তৃপক্ষের দেশের কর্তৃপক্ষের…

পরীক্ষা কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ডিভাইস সঙ্গে রাখায় ৫ যুবক আটক

  জয় চক্রবর্তী, বনগাঁঃ রাজ্য জুড়ে রিটেন এক্সামিনেশন অফ কন্সটেবলের পরিক্ষা ২৩শে সেপ্টেম্বর বনগাঁ মহকুমার ১৮ টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়েছিলো৷ প্রশাসনের পক্ষ থেকে নির্দেশ ছিল কোন ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস, মোবাইল বা ব্যাগ নিয়ে ঢোকা যাবে না পরীক্ষা কেন্দ্রে। এবং তার জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে প্রচার করা হয়েছিল। পরীক্ষা হয় ১২ টা থেকে ১ টা পর্যন্ত। মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষা হয়৷ দীনবন্ধু মহাবিদ্যালয় কেন্দ্র, বনগাঁ হাই মাদ্রাসা কেন্দ্র এবং নিউ বনগাঁ হাইস্কুল পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস নিয়ে ঢোকার অপরাধে ৫ জনকে আটক করে বনগা থানার পুলিশ এদিন৷