দেগঙ্গায় তৃনমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে উত্তপ্ত হল আমুলিয়া ও চৌরাশি পঞ্চায়েত

নিজস্ব প্রতিনিধি,দেগঙ্গাঃ উওর ২৪ পরগনার দেগঙ্গা বক্লে পঞ্চায়েত বোর্ড গঠন নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে উত্তপ্ত হয়ে উঠল দেগঙ্গার আমুলিয়া ও চৌরাশি পঞ্চায়েত এলাকা। ২৬শে আগস্ট, রাত থেকে সেখানে শুরু হয়েছে বোমাবাজি। দেগঙ্গার বিধায়ক তৃণমূল নেত্রী রহিমা মণ্ডলের গাড়ি ভাঙচুর করে তাঁকে খুনের চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি মফিদুল হক শাহাজি ওরফে মিন্টুর অনুগামীদের বিরুদ্ধে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় দেগঙ্গা থানার পুলিশ সহ বিশাল পুলিশ বাহিনী। বোর্ড গঠন হওয়ার কথা আমুলিয়া ও চৌরাশি গ্রাম পঞ্চায়েতে। চৌরাশি পঞ্চায়েতে প্রধান পদের জন্য পারভিনা বিবি ও…

বিজেপি কে সৌজন্যতা তৃণমূলের

  নিজস্ব প্রতিনিধি, বনগাঁঃ বোর্ড গঠনের দিন রাজনৈতিক সৌজন্য দেখালো তৃণমূল। ২৭শে আগস্ট, সোমবার বনগাঁ ব্লকের গোপালনগর ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠনের পর জয়ী প্রার্থীদের সম্বর্ধনার ব্যবস্থা করে তৃণমূল। সেখানে জয়ী দলীয় সদস্যদের পাশাপাশি ২টি আসনে জয়ী বিজেপি প্রার্থী মানু বিশ্বাস এবং সুচিত্রা গোলদারকেও সম্বর্ধনা দেওয়া হয়। এমন ঘটনায় আপ্লুত তাঁরা। এ ব্যাপারে বনগাঁর তৃণমূল বিধায়ক বিশ্বজিৎ দাস জানান, এভাবেই আমরা রাজনৈতিক সৌজন্য দেখাতে অভ্যস্ত। তৃণমূল হিংসার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না। উল্লেখ্য, মানু বিশ্বাস চরচালকি এবং সুচিত্রা গোলদার গোবিন্দপল্লী গ্রাম থেকে জয়ী হয়েছেন। ‌

তৃনমূল কংগ্রেসের পঞ্চায়েত গঠন হল হাবড়ার ১ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির কুমড়া পঞ্চায়েতে

  শান্তনু বিশ্বাস, হাবড়াঃ ২৭শে আগস্ট, সোমবার পঞ্চায়েত গঠন করলো তৃণমূল কংগ্রেস। উত্তর ২৪ পরগণার হারড়া এক নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির কুমড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান হিসাবে শপথ গ্রহন করেন তৃন‍মূল কংগ্রেসের জয়ী প্রার্থী রত্না বিশ্বাস। এছাড়াও তৃন‍মূল কংগ্রেসের জয়ী প্রার্থী উপপ্রধান চন্দন ঘোষ। মোট ২৯টি আসনের ২৯টিতেই জয়ী হয় তৃণমূল কংগ্রেস। এদিন শান্তিপূর্বক পঞ্চায়াত গঠন হয়। নিরাপত্তা ছিল আটো সাটো যাতে কোন রকম গন্ডগোল সৃষ্টি না হয়। শপথ গ্রহনের পর রত্না বিশ্বাস বলেন, প্রধান হিসাবে তার প্রথম কাজ মানুষ কে নিরাপত্তা দেওয়া, পাশে থাকা। এছাড়াও সাধারণ মানুষ যাতে বাঁচতে পারে ও শান্তিতে বসোবাস…

গাইঘাটা এবং বাগদায় পঞ্চায়েত র্বোড গঠন করল বিজেপি

জয় চক্রবর্তী, গাইঘাটাঃ পঞ্চায়েত ভোটের ফলাফল বেরনোর প্রায় ১০২ দিনের মাথায় পঞ্চায়েত গঠন করলো বিজেপি। উত্তর ২৪ পরগণার গাইঘাটার ধর্মপুর-২ পঞ্চায়েতের প্রধান হিসাবে শপথ গ্রহন করেন বিজেপির নীলাদ্রী ঢালী, পেশায় তিনি স্কুল শিক্ষক। মোট ১৬ টি আসনের মধ্যে বিজেপি পেয়েছিল ৮টি, তৃণমূল ৬টি ও নির্দল ২টি। যার মধ্যে একটি বিজেপিতে আর একটি তৃণমূলে গিয়ে বিজেপি ৯ টা সিট নিয়ে পঞ্চায়েত ঘটন করে। পঞ্চায়েত গঠনের পর আনন্দে মাতোয়ারা বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। শপথ গ্রহনের পর নীলাদ্রী ঢালী বলেন, তার প্রথম কাজ হবে গরীবের সেবা করা ও মানুষের পাশে থাকা। এই বিষয়ে প্রক্তন প্রধানের…