ঠাকুর তৈরী করার সময় বজ্রাঘাতে গুরুত্বর আহত ২

অমিয় দে, রায়দীঘিঃ প্রতিদিনের মতো আজও বাড়ির পাশে ঠাকুর তৈরীর কাজে ব্যাস্তছিলো দুই ভাই। দুপুরে প্রবল বৃষ্টির হওয়া সত্ত্বেও কাজ বন্ধ করেনি তারা, সেই সময় হঠাৎ বজ্রাঘাত হয় আর তাতেই গুরুত্বর আহত হয় দুই ভাই। ঘটনাটি ঘটে রায়দীঘি থানার নারায়নপুর হালদারের ঘেড়ি এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সকাল থেকে প্রবল বৃষ্টি হচ্ছিলো কিন্তু ছিল কাজের চাপ। দুই ভাই সুপ্রভাত পাত্র ও গণেশ পাত্র বাড়ির পাশেই ঠাকুর তৈরীর কাজ করছিলো। সেই সময় তাদের থেকে কিছুটা দূরে বাজ পড়ে আর তাতেই গুরুত্বর হয় দুই ভাই। তাদেরকে স্থানীয় রায়দীঘি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।…

প‍র পর পথ দূর্ঘটনায় হারিয়েছে এক একটা তরতাজা প্রান, দেরিতে হলেও তৎপর হয়েছে পুলিশ

  শান্তনু বিশ্বাস, হাবড়াঃ বেশ কিছু দিন ধরে হাবড়া থানার অন্তরগত গৌরবঙ্গ রোডে গত কয়েক মাস ধরে বড়ো ধরনের দূর্ঘটনা ঘটেই চলছে। আহত হয়েছে বেশ কয়েক জন এবং মারা যায় ২ জন। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গত তিন বছরের মধ্যে গৌরবঙ্গ রোডে যে সমস্ত জাগায় প্রতি নিয়ত দূর্ঘটনা ঘটেছে, সেই ১৩ টি জাগায়, দুই পাশে গাডওয়েল দেওয়া থেকে শুরু করে বাড়তি নজরদারী থাকবে এবার থেকে। দেরিতে হলেই হয়তো এই পদক্ষেপের দরুন বাঁচবে দুর্ঘটনা থেকে অনেক প্রান।

আর কত মানুষের প্রান কারবে গৌরবঙ্গ রোডঃ প্রশ্ন সাধারণ মানুষের

  শান্তনু বিশ্বাস, হাবড়াঃ হাবড়া গৌরবঙ্গ রোডে আবার পথ দূর্ঘটনার জেরে প্রান গেল এক ব্যাক্তির। ট্রাকের ধাক্কায় মারাত্বক জখম হয় এক ব্যক্তি। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আহত ব্যক্তির নাম নিরঞ্জন ব্যাপারী (৩৬) সকালে দিনমজুর থেকে যাচ্ছিল মগরা বাজারের দিকে। হাবড়ার দিক থেকে দুরন্ত গতিতে আসা এক ট্রাক পিছন দিক থেকে ধাক্কা মেরে চলে যায়। তড়িঘড়ি নিয়ে যাওয়া হয় হাবড়া হাসপাতালে। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় কলকাতা রেফার করা হলে আরজি করে নেওয়ার পথে আশঙ্কাজনক হওয়ায় বারাসাত হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে ডাক্তাররা জখম নিরঞ্জন ব্যাপারী কে মৃত বলে ঘোষনা করে। ঘটনার প্রতিবাদ ও…

গুমা স্টেশনে বিষ খেয়ে কাতরাচ্ছিল বছর ৪০-এর এক ব্যক্তি, সব চিন্তা-ভাবনা একদিকে রেখে প্রান বাঁচালো এক শিক্ষিকা

  শান্তনু বিশ্বাস, হাবড়াঃ বনগাঁ-শিয়ালদহ শাখার গুমা স্টেশনে ভর দুপুরে বিষ খেয়ে কাতরাচ্ছিল বছর ৪০-এর এক ব্যক্তি। কেউ সাহাজ্য করতে এগিয়ে এলো না। তবে মুখ ফেরাতে পারল না এক শিক্ষিকা। হাবড়া থানার অন্তর্গত পৃথীবা পঞ্চায়েত রাধারানী স্কুলের অমৃতা মুখোপাধ্যায় নামে এক শিক্ষিকা, সবাই যখন দেখে পাশ কাটিয়ে চলে যাচ্ছিল তখন সব চিন্তা-ভাবনা একদিকে রেখে অমৃতা দেবী গাড়ি ভাড়া করে আসঙ্খাজনক অবস্থায় ব্যক্তিটিকে হাবড়া হাসপাতালে ভর্তি করেন। অসুস্থ ব্যক্তির নাম বিশ্বদেব চক্রবর্তী। বাড়ি গাইঘাটা থানার অন্তর্তগত উত্তর শিমুলপুর এলাকায়। বছর পাঁচেক আগে দমদম ক্যান্টনমেন্টের বাসিন্দা স্বামী বিচ্ছিন্না পূর্নিমার সঙ্গে ভালোবেসে বিয়ে…