জেনে নিন আমলিরসের ঠিক কি কি উপকারিতা রয়েছে

Share Bengal Today's News
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডে:

আপনারা কি জানেন আয়ুর্বেদ মতে, এটি সব বয়সের জন্য অমৃত ফল। কেন জানেন? আমলকির অনেক গুণ। শরীর এবং ত্বক দূষণমুক্ত করে। রক্ত পরিশ্রুত করে। এছাড়া আমলকিতে প্রচুর ভিটামিন থাকায় ত্বক-চুল পুষ্ট হয়। সৌন্দর্যে ঝলমলিয়ে ওঠে। আরও অনেক গুণের নিধি আমলকি। সেগুলো কী কী?

১. বর্তমানে রোজ একটা করে দিন যাচ্ছে আর তাপমাত্রা হুড়মুড়িয়ে নামছে।বাচ্চা থেকে বড় সব্বাই কাবু জ্বর-সর্দি-কাশিতে। ঘরে কত ওষুধ মজুত রাখবেন? আবার ওষুধের তো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে! তাই ডায়েটিসিয়ানদের মতে, ঠান্ডার রোগ যাঁদের আছে তাঁরা রোজ এক চামচ আমলকির রসে এক চামচ মধু মিশিয়ে খেতে পারেন। এতে সর্দি-কাশি থেকে রেহাই মিলবে।

২. অনেকের ভিটামিনের অভাব বা হজমের সমস্যা থেকে মুখে ঘা হয়| সে ভয়ানক কষ্টের। একমাত্র মিষ্টি আর থাবড়া খাবার ছাড়া অন্য কিছু খেলেই মুখের ভিতর জ্বালা করে। নিয়ম করে আমলকির রস খেলে মুখের আলসার বা ঘা কমবে।

৩. আমলকি মানেই প্রচুর অ্যামিনো অ্যাসিড আর anti-oxidant। এই উপাদান দু’টি হৃদপিন্ডের কর্মক্ষমতা বাড়ায়। হৃদ-পেশি মজবুত করে। এছাড়াও, নিয়মিত আমলকির রস খেলে কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে থাকে। তাই রোজ খালি পেটে ছোট এক কাপ আমলকির রসে অল্প নুন মিশিয়ে খেয়ে নিন। নিজেই তফাত বুঝতে পারবেন।

৪. আমলকির রসের টক স্বাদ শরীরে জমে থাকা বাড়তি শর্করা নষ্ট করে দেয়। তাই ডায়াবেটিস রোগীদের সুগারনিয়ন্ত্রণে রাখতে আমলকির সত্যি বিকল্প নেই। শুধু কি তাই? আমলকির রস রোজ খেলে সর্দি-কাশি কমে যায় বলে হাঁপানির রোগীরাও শীতে তুলনায় সুস্থ থাকেন। তাই ইনহেলারের বদলে আজ থেকে আপন করে নিন আমলকিকে।

৫. আয়ুর্বেদ আরও বলছে, আমলকির রস হজম ক্ষমতা বাড়ায়, বিপাক ক্রিয়ায় সাহায্যও করে। আগেকার দিনে মা-মাসিরা তাই খাওয়ার পর আমলকির টুকরো চিবোতেন। আমলিকর মধ্যে থাকা এনজাইম গ্যাস-অম্বল কমায়। এতে খাবার সহজে হজম হয়। সরাসরি আমলকির রস খেতে না পারলে রোজ নুন মাখানো আমলকির টুকরো দুপুরে খাওয়ার পর খেয়ে নিন। একই রকম ফল পাবেন। না হলে আমলকির হজমি তো আছেই। তবে এর টক ভাবের জন্য রাতে আমলকি না খাওয়াই ভালো।

৬. শুরুতেই বলা হয়েছে, আমলকির রসে প্রচুর anti-oxidant উপাদান আছে। এই উপাদান শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ বের করে দেয়। বিষাক্ত পদার্থ বেরিয়ে গেলে শরীর সুস্থ থাকে। তার জন্য ত্বক-চুল-এ আসে বাড়তি জেল্লা। একই সঙ্গে লিভার ভালো রাখে। তাহলে আজ থেকে আমলকির রস খাচ্ছেন তো?

৭. এবার জেনে নিন আমলকিতে কী কী ভিটামিন থাকে, পুষ্টি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি ছাড়াও এতে থাকে আয়রন, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস। ভিটামিন সি ত্বক-চুলে পুষ্টি জোগায়। ক্যালসিয়াম হাড় মজবুত করে। আয়রন রক্তাল্পতা কমিয়ে শরীরে রক্তের পরিমাণ বাড়ায় অর্থাৎ, এটি পরিপূর্ণ পুষ্টিকর পানীয়।

৮. এছাড়াও চোখ ভালো রাখতে আমলকি গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে। এর মধ্যে থাকা ফসফরাস চোখের জ্যোতি বাড়াতে সাহায্য করে। তাই ছোট থেকে রোজ আমলকির রস খেলে বাচ্চদের চট করে নাকের ডগায় চশমা উঠবে না।

সম্পর্কিত সংবাদ