ধর্মতলার টিপু সুলতান মসজিদে এবার রমজান পালনের অধিকার পেলেন মহিলারা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ

১৮৪ বছরের ইতিহাসে এই প্রথমবার কলকাতা ধর্মতলার টিপু সুলতান মসজিদে রমজান পালনের অধিকার পেলেন মহিলারা । প্রচলিত প্রথা ভেঙে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন খোদ মসজিদের বর্তমান কর্তৃপক্ষ তথা প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্স গোলাম আলি শাহের পৌত্র প্রিন্স আনোয়ার আলি শাহ ।

এই রমজানে এবার মসজিদে বসেই ইফতার পালন করতে পারবেন মহিলারা । এই প্রথমবার মসজিদ সংলগ্ন এলাকাতেই অস্থায়ী ছাউনির ব্যবস্থা করা হয়েছে বিশেষ করে মহিলাদের জন্য । পর্যাপ্ত আলো , পাখা , বিশ্রাম ও প্রার্থনার আসনের বন্ধোবস্তও রাখা হয়েছে । রাখা হয়েছে রোজা ভাঙার পর্যাপ্ত খাবারও । প্রায় ১৫০ জন মহিলা প্রতিদিন মসজিদে ইফতারে অংশগ্রহণ করতে পারবেন । সাধারণত ইফতারি মহিলারা সঙ্গেই নিয়ে আসেন । তবুও মসজিদের তরফে ফল , ছোলা , মিষ্টি ও সরবতের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে ।

কলকাতার প্রাণকেন্দ্র ধর্মতলা চত্বর পুরোটাই প্রায় মার্কেটের জন্য বিখ্যাত । রমজানের শেষেই ঈদ । ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে কেনাকাটার হিড়িক । রমজানের সময় কলকাতার অন্য চত্বর থেকেও ধর্মতলায় কেনাকাটা করতে আসেন বহু মহিলারা । আগে সঙ্গে করে নিজেরাই খাবার নিয়েই আসতেন । অনেককে রাস্তাতেই খাবার পর্ব সেরে রোজা ভাঙতে হতো । তবে রাস্তায় থাকার কারণে বাদ পড়তো রোজার পরবর্তী প্রার্থনা । নিয়মে মেনে রমজান পালনের ইচ্ছে থাকলেও ব্যবস্থাপনার অভাবে সম্ভব হতোনা কখনোই ।

এছাড়াও আগে কেনাকাটা চলাকালীন রোদ বা বৃষ্টি পড়লে কোথায় রোজা ভাঙবেন তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়তে হত । তবে এই বছর দৃশ্যটা একটু অন্য, সেই সবরকম সমস্যা থেকেই মুক্তি পেতে চলেছেন মহিলারা । কাজ সেরে বা কেনাকাটা সেরে মসজিদের অস্থায়ী শিবিরেই ইফতার করে সেরে নিতে পারবেন প্রথামাফিক নমাজ । আগে যে সুবিধা শুধু পুরুষদের জন্য উপলব্ধ ছিল, এখন থেকে তা উপভোগ করতে পারবেন মহিলারাও । মসজিদ কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্তে ভীষণ খুশি মহিলারা । ভবিষ্যতে আসন সংখ্যা আরো বাড়ানো যায় কিনা সে ব্যাপারেও ভাবনা চিন্তা শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ ।

সম্পর্কিত সংবাদ