জঙ্গলমহলে শিশুদের খাদ্যের গুনমান ও পরিকাঠামো তদারকিতে মন্ত্রী শশী পাঁজা

Share Bengal Today's News
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সন্দীপ ঘোষ, ঝাড়গ্রাম :

জঙ্গলমহলের শিশুরা অপুষ্টিতে ভুগছে কিনা, খাদ্যের তালিকার সঠিক পরিমান খাদ্য পাচ্ছে কি না তা খতিয়ে দেখতে ২ দিনের জেলা সফরে হাজির নারী ও শিশু উন্নয়ন এবং সমাজ কল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী শশী পাঁজা। অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের মাধ্যমে শিশুদের সুসংহত বিকাশের যাতে কোন ফাঁক না থাকে তার জন্য সমন্বয় বজায় রেখে কাজ করতে হবে। ১৩ই জুন বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম এবং পশ্চিম মেদিনীপুর তিন জেলার আধিকারিকদের নিয়ে একটি বৈঠককে মিলিত হন রাজ্য নারী ও শিশু উন্নয়ন এবং সমাজ কল্যাণ দফতরের মন্ত্রী শশী পাঁজা।

এদিন ঝাড়গ্রাম জেলা শাসকের সভা কক্ষে দুপুর ১২ টা থেকে বিকেল পর্যন্ত টানা বৈঠক করেন মন্ত্রী শশী পাঁজা। বৈঠকে ৩ জেলার অতিরিক্ত জেলাশাসক, ৭ টি মহকুমার মহকুমাশাসক,৩ জেলার ৪৯ টি ব্লকের সিডিপিও সহ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন নারী ও শিশু উন্নয়ন এবং সমাজ কল্যাণ দফতরের সচিব সঙ্ঘমিত্রা ঘোষ, যুগ্ম সচিব অভিজিৎ মিত্র, অতিরিক্ত সচিব নবগোপাল হিরা, ঝাড়গ্রামের জেলাশাসক আর অর্জুন। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন ঝাড়গ্রামের মহকুমা শাসক নকুলচন্দ্র মাহাত সহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ আধিকারিক।


মন্ত্রী জানান, এবার শিশুরা নতুন মেনু পাচ্ছে খাবারের প্রতিদিন ডিম। জেলায় নতুন আরও ৪৪ টি অঙ্গনওয়ারী কেন্দ্র। ঝাড়গ্রাম জেলার বিভিন্ন ব্লকে বহু জায়গাতেই অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের নিজস্ব ঘর নেই । অনেক কেন্দ্রে কর্মীদের অভাব রয়েছে। এই বিষয় গুলির পাশাপাশি শিশুদের সঠিক পরিমানে আহার, কেউ অপুষ্টিতে ভুগছে কিনা বা সকলে পরিমান মত আহার পাচ্ছে কিনা সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলি সম্পর্কে বিভিন্ন ব্লকের সিডিপিওদের কাছ থেকে জেনে নেন। এদিন সকালে প্রশাসনিক রিভিউ বৈঠকের আগে মন্ত্রী শশী পাঁজা শহরের বেশ কয়েকটি অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রও ঘুরে দেখেন।

সম্পর্কিত সংবাদ