গাছ কাটতে বাধা দেওয়ায় এলোপাথাড়ি দাঁ-এর কোপে আহত ২

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শান্তনু বিশ্বাস, হাসনাবাদঃ

১২ই জুন রাতে হাসনাবাদের বায়লানী গ্রামের বাসিন্দা অনির্বাণ বাছাড় নামে এক গ্রামবাসীর বাড়িতে হামলা চালায় স্থানীয় সৈদুল শেখ নামে এক প্রতিবেশী যুবক। অভিযোগ,অনির্বান বাবুর বাঁশ ঝাড় থেকে বাঁশ কাটতে বাঁধা দিলে সৈদুল তার হাতের দাঁ দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে অনির্বাণকে। তার চিৎকারে অনির্বানের দাদা গৌতম ও অনির্বানের স্ত্রী শতাব্দী তাকে বাঁচাতে গেলে তাদেরও মারধোর করা হয় বলে অভিযোগ। ঘটনার পর আহত অনির্বাণ ও গৌতমকে টাকি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অপরদিকে ঘটনার পর থেকেই পলাতক সৈদুল শেখ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অনির্বান বাবুর বাঁশ ঝাড় থেকে বাঁশ কাটতে যায় সৈদুল। তাতে বাঁধা দিলে শুরু হয় বচসা। অভিযোগ, সেই সময় সৈদুল তার হাতের দাঁ দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে অনির্বাণকে। তার চিৎকারে অনির্বানের দাদা গৌতম ও অনির্বানের স্ত্রী শতাব্দী তাকে বাঁচাতে গেলে তাদেরও মারধোর করা হয় বলে অভিযোগ। ঘটনার পর আহত অনির্বাণ ও গৌতমকে টাকি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

আক্রান্ত অনির্বাণ বাছাড় বলেন, “এলাকায় দুস্কৃতি হিসেবে পরিচিত সৈদুল স্থানীয় তৃণমূলের প্রাক্তন অঞ্চল সহ সভাপতি খুদিরাম পাত্র ও তার শাগরেদ প্রহ্লাদ বাছাড় এর কথায় কাজকর্ম করে। তৃণমূলের প্রভাব খাটিয়ে এলাকায় তোলাবাজি করে সৈদুল”।

এমনকি সৈদুল বেশ কিছু দিন আগেও গাছ কাটার বিধি নিষেধকে উপেক্ষা করে ওই জমি থেকে জোরপূর্বক বেশ কিছু বাঁশ গাছ ও মেহেগুনী গাছ কেটে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ তোলেন অনির্বাণবাবু। মূলত ঘটনার পর থেকেই পলাতক সৈদুল শেখ। সৈদুল সহ বেশ কয়েকজনের নামে হাসনাবাদ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন আক্রান্তরা।

সম্পর্কিত সংবাদ