ঐতিহাসিক বৈঠক কিম ও ট্রাম্পের

ঐতিহাসিক বৈঠক কিম ও ট্রাম্পের

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ

১২ ই জুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের মধ্যে ঐতিহাসিক শীর্ষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে সিঙ্গাপুরের সেন্তোসা দ্বীপের বিলাসবহুল ক্যাপেলা হোটেলে ।

এদিন দু দেশের নেতাদের মধ্যে এই প্রথম এ ধরনের বৈঠক হয়। বৈঠকটি শুরু হয় স্থানীয় সময় সকাল ৯টায়। বৈঠকের শুরুতে তারা করমর্দন করেন যা আমেরিকা সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের টেলিভিশন চ্যানেল গুলো সরাসরি সম্প্রচার করে।

এরপর দু দেশের নেতা একান্ত বৈঠকে বসেন। সেখানে শুধুমাত্র দু দেশের দু জন অনুবাদক ছিলেন। বৈঠক স্থায়ী হয়েছে প্রায় এক ঘণ্টা মতো। বৈঠক শেষে ডোনাল্ড ট্রাম্প ও কিম জং উন গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন। ট্রাম্প বলেন, “খুবই ভালো বৈঠক হয়েছে এবং আমাদের দুজনের মধ্যে দারুণ সম্পর্ক তৈরি হতে পারে এতে কোনো সন্দেহ নেই।”

অপরদিকে কিম বলেন, “এ বৈঠকে বসা খুব সহজ ব্যাপার ছিল না। পুরনো কুসংস্কার এবং অভ্যাসগুলো এক্ষেত্রে বাধা হিসেবে কাজ করে এসেছে কিন্তু আমরা সেগুলোকে উতরে যেতে পেরেছি।”

এছাড়া কিম জং উন আরও বলেন, “বিশ্বের অনেকেই মনে করতে পারেন যে, এটা ছিল সায়েন্স ফিকশন মুভির কোনো কোনো অলীক ঘটনা।”

হোয়াইট হাউজ সূত্র জানিয়েছে, প্রেসিডন্টে ট্রাম্প ১২ই জুন রাতে সিঙ্গাপুর ছাড়বেন। হোয়াইট হাউজ আরো জানিয়েছেন, পরমাণু বিষয়ক আলোচনা ধারণার চেয়েও দ্রুত গতিতে এগুচ্ছে।

প্রসঙ্গগত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের আমেরিকা ফেরার কথা ছিল ১৩ই জুন কিন্তু উত্তর কোরিয়ার নেতার সঙ্গে বৈঠকের পর তিনি এখন দ্রুত সেখান থেকে দেশে ফিরতে চান। এর আগে, গত সপ্তাহে ট্রাম্প বলেছিলেন, বৈঠক দুই থেকে তিনদিনেও গড়াতে পারে। যদিও বৈঠকে কী ঘটছে তার ওপর সবকিছু নির্ভর করবে বলেও তিনি মন্তব্য করেছিলেন।

You May Share This
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *