রোহিঙ্গা ইস্যুতে আইসিসিতে বাংলাদেশের মতামত

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বেঙ্গলটুডে প্রতিনিধি, ঢাকা:

আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিসি) অনুরোধে সাড়া দিয়ে রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারকে নিয়ে মতামত জানিয়েছে বাংলাদেশ। আইসিসির প্রি-ট্রায়াল চেম্বার গত ৭ই মে বাংলাদেশ সরকারকে চিঠি পাঠিয়ে মতামত জানানোর অনুরোধ করে। এ ক্ষেত্রে ১১ জুন পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয় তারা। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই সাড়া দিলো বাংলাদেশ।

৭ ই জুন বৃহ্স্পতিবার পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মাদ শাহরিয়ার আলম গণমাধ্যমকে জানান, আমরা আইসিসির অনুরোধে সাড়া দিয়ে আমাদের জবাব হাস্তান্তর করেছি। এখন পর্যন্ত তিন ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠান আইসিসির অনুরোধে সাড়া দিয়ে তাদের মতামত দিয়েছে। আইসিসি প্রকাশ্যে বা গোপনীয়ভাবে মতামত জানানোর জন্য বাংলাদেশ সরকারকে বলেছিল। বাংলাদেশ সরকার বিষয়টির স্পর্শকাতরতা বিবেচনা করে গোপনীয়ভাবে তাদের মতামত জানিয়েছে।

সূত্র জানায়, রাখাইনে রোহিঙ্গা নিধনের ঘটনায় হেগভিত্তিক আদালত আইসিসির প্রসিকিউটর ফাটু বিনসুদা গত ১৯ এপ্রিল মিয়নমারের বিরুদ্ধে বিচারের আবেদন করেন। সে পরিপ্রেক্ষিতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলা পরিচালনা করার বিষয়ে বাংলাদেশের মতামত চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছিলো আইসিসি। আইসিসি ১১ জুনের মধ্যে এ বিষয়ে লিখিতভাবে মতামত জানানোর জন্য বাংলাদেশকে অনুরোধ করে। সে অনুযায়ী বাংলাদেশ আইসিসিকে মতামত পাঠিয়েছে। বাংলাদেশের মতামতের পরিপ্রেক্ষিতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আইসিসিতে বিচার প্রক্রিয়া আরও সহজ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

গত বছর ২৫ আগস্ট রাখাইনে নতুন করে সেনা অভিযান শুরুর পর এ পর্যন্ত সাড়ে সাত লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। তবে রাখাইন থেকে পালিয়ে আসার সময় রোহিঙ্গারা গণহত্যার শিকার হয়েছে বলে জানা যায়। রোহিঙ্গা গণহত্যার জন্য মালয়েশিয়ায় প্রতীকী আদালতে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীকে দোষী সাব্যস্তও করা হয়েছে। মিয়ানমারে নিপীড়নের মুখে গত কয়েক দশকে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়ে আছে আরও প্রায় তিন লাখ রোহিঙ্গা। সেনাবাহিনী অভিযান ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ নিয়ে ব্যাপক আন্তর্জাতিক সমালোচনার মুখে শরণার্থীদের ফেরত নিতে সম্মত হয় মিয়ানমার।

সম্পর্কিত সংবাদ