ব্যারাকপুরে পেট্রোল- ডিজেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখালো ব্যারাকপুর শহর যুব তৃণমূল

Share Bengal Today's News
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

অরিন্দম রায় চৌধুরী, ব্যারাকপুরঃ

গত ২৫শে মে রাত্রে পেট্রোল ও ডিজেলের দাম এক লাফে ৮০.৪৭ ও ৭১.৩০ টাকা হয়ে যাওয়ায়ে সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে জেতে বসেছে নিত্য দিনের জিনিসপত্র। স্বভাবতই এর জ্বের গিয়ে পড়েছে বাজারের শাক-সব্জির উপর। ২৬শে মে দেখা গেল ব্যারাকপুর শান্তি বাজারে ১কেজি আলির দাম গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১৮/- টাকায় ও পেয়াজ থেকে কাঁচা সব্জিও তাল মিলিয়ে বেড়ে গিয়েছে।

বাজারে শাক-সব্জির দাম আকাশ ছোঁয়া হওয়ায়ে সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস

মানুষের যে নাভিশ্বাস উঠেছে বাজার থেকে রোজকার খাবার কাঁচা শাক-সব্জি কিনতে অপর দিকে বাহনের তেলের দাম ঊর্ধ্বমুখী হওয়ায়ে আগামী দিনে যে আরও বাজারের জিনিসপত্রের দাম বাড়তে চলেছে তা বলাই বাহুল্য। এমত অবস্থায় ২৬শে মে, শনিবার ব্যারাকপুর শহর যুব তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে পেট্রোল ডিজেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ব্যারাকপুর স্টেশন চত্ত্বরে প্রতিবাদ সভা আয়োজিত হয়।

ব্যারাকপুর স্টেশন চত্বরে ব্যারাকপুর শহর যুব তৃনমূলের বিক্ষোভ সভা – ছবি – শুভাশিষ সোম

এদিনের এই প্রতিবাদ সভায় উপস্থিত ছিলেন উত্তর ২৪ পরগনার জেলা তৃণমূল কংগ্রেস পর্যবেক্ষক ও বিধানসভার তৃনমূলের মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ, জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেস নেতা জয়দীপ দাস, ব্যারাকপুর টাউন যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি উত্তম দাস, দেবাশীষ ঘোষদস্তিদার, সুপ্রভাত ঘোষ, লালন পাসোয়ান,রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য সহ তৃণমূল কংগ্রেস আরও নেতৃত্ব।


উল্লেখ্য উপস্থিত সকলকেরই বক্তব্যের মধ্যে ছিল সাধারণ মানুষের এই দুর্দশার কথা এই পরিস্থিতিতে যে সকলেরই সমস্যার সম্মুখীন হওয়ার কথা। কারন সাধারণত ডিজেলের দাম বৃদ্ধি হলে বাজারে সমস্ত জিনিসের দাম বৃদ্ধি হয়। এই দিন ব্যারাকপুর স্টেশন চত্বরে প্রতিবাদ সভার শেষে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কুশপুতুলও পোড়ানো হয়। তবে এত প্রতিবাদের পর আদৌ তেলের দাম কমে কিনা এখন সেটাই দেখার।

সম্পর্কিত সংবাদ