বাংলাদেশে ডিজিটাল আইনের অসঙ্গতি দূর করার আশ্বাস সংসদীয় কমিটির

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মিজান রহমান, ঢাকা:

প্রস্তাবিত ডিজিটাল আইনে সাংবাদিক ও সংবাদপত্রের স্বাধীনতার ক্ষেত্রে অসঙ্গতি দূর করার আশ্বাস দিয়েছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি। ২২ মে মঙ্গলবার সংসদ সচিবালয়ে সাংবাদিক প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকে এই আশ্বাস দেয় সংসদীয় কমিটি। সাংবাদিক প্রতিনিধিদের মধ্যে বেসরকারি টেলিভিশন মালিক প্রতিনিধি, সম্পাদকপরিষদ ও বিএফইউজের প্রতিনিধিরা বৈঠকে অংশ নেন।

বৈঠক শেষে গণমাধ্যম প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়গুলো সংসদীয় কমিটির পক্ষ থেকে ইতিবাচকভাবে বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানান তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি বলেন, ‘সাংবাদিক প্রতিনিধিরা যে ধারাগুলোর ব্যাপারে আপত্তি তুলেছেন, সেক্ষেত্রে আমরা একমত হয়েছি। এ বিষয়টি সংবাদপত্রের ক্ষেত্রে যাতে কোনো বাধা না হয় এবং গণমাধ্যম যেন স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারে, সে বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে আমরা প্রয়োজনীয় সংশোধন আনবো।’ তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৮টি ধারা নিয়ে শুরু থেকেই গণমাধ্যমের ব্যক্তিরা আপত্তি করে আসছিলেন। ওইসব ধারা বহাল রেখে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাস করা হলে স্বাধীন গণমাধ্যমের ওপর খড়গ নেমে আসার আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছিল গণমাধ্যমের পক্ষ থেকে। এ জন্য শুরু থেকেই খসড়া আইনটির বিষয়ে সাংবাদিকরা আপত্তি তুলেছিলেন। সেই আপত্তি ও মতামত যৌক্তিক বলে মনে করছে সংসদীয় কমিটি ও আইনমন্ত্রী।
বৈঠক শেষে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, সাংবাদিক সমাজ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে যে সকল মতামত তুলে ধরেছেন তা যৌক্তিক। তাদের দাবিগুলোও যৌক্তিক। তাই আমরা আইনটি নতুন করে খসড়া করে সাংবাদিকদের সঙ্গে বসে চূড়ান্ত করবো। সংসদীয় কমিটির সভাপতি ইমরান আহমদ সাংবাদিকদের বলেন, আমরা সাংবাদিক নেতাদের কথা শুনেছি। তাদের কথাগুলো ইতিবাচকভাবে নিয়েছি। তাদের দাবিগুলো ইতিবাচকভাবে নিয়ে আমরা খসড়া তৈরি করবো। বৈঠকের শুরুতে সভাপতি সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান।’

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট সফলভাবে উৎক্ষেপণ হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা, মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকলকে কমিটির পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানানো হয়। বৈঠকে বিভিন্ন স্টেকহোল্ডার বিলের ধারা ৮, ২১, ২৫, ২৮, ২৯, ৩১, ৩২ ও ৪৩ বিষয়ে বিস্তারিত বক্তব্য কমিটিতে উপস্থাপন করা হয় এবং সম্পাদক পরিষদ ও বিএফইউজের লিখিত বক্তব্য কমিটিতে পেশ করা হয়। সংসদীয় কমিটির সভাপতি ইমরান আহমেদের সভাপতিত্বে বৈঠকে সংসদীয় কমিটির সদস্যরা এবং বিশেষ আমন্ত্রণে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ও ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার অংশ নেন। আর বৈঠকে কমিটির সদস্যদের মধ্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, শওকত হাচানুর রহমান (রিমন), কাজী ফিরোজ রশীদ, হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়াও কমিটির আমন্ত্রণে অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্স-এর প্রেসিডেন্ট সালমান এফ রহমান, ভাইস প্রেসিডেন্ট মোজাম্মেল হক বাবু, বিএফইউজের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, মহাসচিব ওমর ফারুক, সম্পাদক পরিষদের সভাপতি গোলাম সরওয়ার এবং দি ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহ্ফুজ আনাম বৈঠকে অংশ নেন। আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব এবং মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment