তুতিকোরিনের ঘটনার প্রতিবাদে ধর্মতলায় SUCI-র বিক্ষোভ

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শর্বাণী দে, বেঙ্গল টুডে

তামিলনাড়ুর তুতিকোরিনে বিক্ষোভে পুলিশের গুলি চানালোর ঘটনায় ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেই প্রতিবাদে ২৩ শে মে ধর্মতলা চত্বরে বিক্ষোভ দেখাল SUCI। দলের প্রাক্তন সাংসদ তরুণ মণ্ডলের নেতৃত্বে এই বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। তরুণবাবু বলেন, “আমরা এই ঘটনার ধিক্কার জানাচ্ছি। সেকারণেই এই বিক্ষোভ সমাবেশে সামিল হয়েছি। এই ঘটনার দায় তামিলনাড়ু সরকারকে গ্রহণ করতে হবে।”

এদিন বিকেলে SUCI সদর দপ্তর থেকে মিছিল করে ধর্মতলা আসেন দলের কর্মীরা। সেখানে তাঁরা ২০ মিনিট পথসভা করেন। তরুণ মণ্ডল বলেন, “পুলিশের গুলিতে সাধারণ মানুষকে প্রাণ হারাতে হচ্ছে। কিন্তু, এখনও প্রধানমন্ত্রী নীরব কেন?” ডোরিনা ক্রসিংয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন চলতে থাকে। তাঁদের দাবি, মোদি সরকারকে এই ঘটনার দায় স্বীকার করতে হবে। পাশাপাশি কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে ক্ষতিপূরণের দাবিও জানিয়েছেন তাঁরা।

প্রসঙ্গগত তুতিকোরিনের বেদান্তর স্টারলাইট কপার ইউনিট থেকে দূষণ ছড়াচ্ছে। এই অভিযোগে কপার ইউনিট অবিলম্বে বন্ধ করার দাবিতে প্রায় একমাস ধরে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন স্থানীয়রা। ২২শে মে বিক্ষোভ মারাত্মক আকার ধারণ করে। মিছিল থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট ছোড়া হয়। ভাঙচুর করে জ্বালিয়ে দেওয়া হয় বেশ কয়েকটি সরকারি গাড়ি। পরিস্থিতি সামাল দিতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। কাঁদানে গ্যাসের শেলও ফাটানো হয়। এরপর বিক্ষোভ রণক্ষেত্রের চেহারা নিলে গুলি চালাতে বাধ্য হয় পুলিশ।

সম্পর্কিত সংবাদ