কাশ্মীরে পাক সেনাদের গুলিতে নিহত ১ বিএসএফ জওয়ান

Share Bengal Today's News
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ

জম্মু-কাশ্মির সীমান্তে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর গুলিতে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের এক জওয়ান নিহত হয়েছেন। সীমান্তের আর এস পুরা সেক্টরে পাক সেনারা গুলিবর্ষণ করলে সীতারাম উপাধ্যায় (২৮) নামে ওই বিএসএফ জওয়ান নিহত হন। ১৯২ ব্যাটেলিয়ানের ওই জওয়ান ঝাড়খণ্ড রাজ্যের বাসিন্দা ছিলেন।

অন্যদিকে, ১৮ই মে সকালে আর এস পুরা ও অরনিয়া সেক্টরে পাকিস্তানি রেঞ্জার্সদের মর্টার হামলায় বিএসএফের এক কর্মকর্তা ও স্থানীয় ৫ বেসামরিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ওই ঘটনায় বেশকিছু ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া সহ পশুদের প্রাণহানি হয়েছে।

অরনিয়াতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে মানুষজনকে বাড়ির বাইরে না বেরোতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট এলাকায় ভারত ও পাক বাহিনীর মধ্যে পাল্টা পাল্টি গুলিবর্ষণ অব্যাহত থাকায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে বেসামরিক মানুষজনকে সাহায্য করা হচ্ছে।

জম্মু-কাশ্মিরের আর এস পুরা সহ বেশ কিছু এলাকায় নিয়ন্ত্রণরেখার ৩ কিলোমিটারের মধ্যে সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এদিন সকালে বান্দিপোরা জেলার হাজিনে নিরাপত্তা বাহিনীর টহলদারি দলের উপরে অজ্ঞাত গেরিলা গুলিবর্ষণ করে পালিয়ে গেছে। এর দরুন নিরাপত্তা বাহিনী ও গেরিলাদের মধ্যে পাল্টা পাল্টি গুলিবিনিময় হয়। নিরাপত্তা বাহিনী গোটা এলাকা ঘিরে ফেলে তল্লাশি চালাচ্ছে।

১৯শে মে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জম্মু-কাশ্মির সফরে যাওয়ার কথা আছে। কিন্তু তার আগেই সীমান্ত সহ রাজ্যের বিভিন্নস্থানে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ভারত-পাক আন্তর্জাতিক সীমান্তে এ নিয়ে পর পর তিন দিন উভয়পক্ষের মধ্যে গোলাগুলি বর্ষণের ঘটনা ঘটল।

অন্যদিকে, ১৭ই মে জেকেএলএফ চেয়ারম্যান মুহাম্মদ ইয়াসীন মালিককে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারের আগে ইয়াসীন মালিক গণমাধ্যমকে বলেন, সরকার একদিকে রমজানে সংঘর্ষ বিরতির আদেশ দিচ্ছে যৌথ প্রতিরোধ নেতাদের রমজান মাসের প্রথম দিনেই গ্রেফতার করা হচ্ছে।

সম্পর্কিত সংবাদ