প্রাপ্ত বয়স্ক হাতির মৃত্যু

Share Bengal Today's News
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সন্দীপ ঘোষ, ঝাড়গ্রাম :

প্রাপ্ত বয়স্ক দাঁতালের মৃত্যুর ঘটনা ঘটল নয়াগ্রাম থানার কোপ্তিভোল গ্রামে। ৮ই মে সকালে গ্রামের ধান জমিতে মৃত অবস্থায় দাঁতাল হাতিটিকে পড়ে থাকতে দেখেন এলাকার বাসিন্দারা। গ্রামে খবর ছড়িয়ে পড়ায় তৈরী হয় চাঞ্চল্য। মৃত হাতি দেখতে ভিড় করতে শুরু করে এলাকার বাসিন্দারা। খবর দেওয়া হয় বনদফতরে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, এদিন সকালে কোপ্তিভোল গ্রামের স্থানীয় মানুষজনেরা মাঠে যাওয়ার সময় সিদ্ধেশ্বর মাহাতর ধান জমির মধ্যে দেখতে পায় একটি হাতি পড়ে রয়েছে। এরপর স্থানীয় মানুষজনেরা হাতির সামনে গিয়ে দেখেন হাতিটি মারা গিয়েছে। হাতির খবর শোনার পরেই পাশাপাশি মানুষজনেরা হাতিটিকে দেখতে ভীড় জমায়। এরপর স্থানীয় মানুষজন বনদফতরকে খবর দেন। খবর পাওয়ার পরেই বনদফতর ঘটনাস্থলে এসে পৌছায়। তবে কি কারণে হাতিটির মৃত্যু হয়েছে তা তদন্ত শুরু করেছে বনদফতর। তবে স্থানীয় মানুষজনদের প্রাথমিক ভাবে ধারনা বিষক্রিয়ার কারণে হাতিটির মৃত্যু হয়েছে হাতিটির।

বনদফতর সুত্রে জানা যায়, ওড়িশা থেকে আসা প্রায় পঁয়তাল্লিশ থেকে পঞ্চাশটি হাতি নয়াগ্রাম ব্লকের বিভিন্ন জঙ্গলে ঘোরাঘুরি করছে। উল্লেখ্য ওড়িশা, ঝাড়খণ্ড সীমান্ত পেরিয়ে বিভিন্ন সময় হাতির দল জঙ্গলমহলে ঢুকে রেসিডেন্সিয়াল হয়ে পড়ে। ফলে হাতির হানায় ফসলের ক্ষতি ও বাড়িঘর ভাঙার পাশাপাশি মানুষের মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। বিভিন্ন সময় ইলেক্ট্রিক শক্, রেললাইন পারাপার, বিষক্রিয়া তে হাতির মৃত্যুর ঘটনাও ঘটেছে। এবিষয়ে খড়্গপুর বন বিভাগের ডিএফও অরূপ মুখ্যোপাধ্যায় বলেন, নয়াগ্রামে একটি প্রাপ্ত বয়স্ক হাতির মৃত্যু হয়েছে। তবে ঠিক কি কারনে হাতিটির মৃত্যু হয়েছে তা ময়না তদন্তের পর জানা যাবে। নয়াগ্রাম এলাকায় বেশ কিছু দিন ধরে রেসিডেন্সিয়াল ও দলমা থেকে আসা প্রায় পঁয়তাল্লিশ থেকে পঞ্চাশটি হাতি রয়েছে। আপাতত হাতিটিকে উদ্ধার করে নয়াগ্রাম রেঞ্জে নিয়ে আসা হয়েছে।

সম্পর্কিত সংবাদ