ঝাড়গ্রামে তৃণমূল প্রার্থীর বাড়িতে আগুন

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সন্দীপ ঘোষ, ঝাড়গ্রাম:

ঝাড়গ্রামে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীর বাড়িতে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। এহেন চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়গ্রাম থানার আগুইবনি অঞ্চলের নেতুরা গ্রামে। এবারে পঞ্চায়েত নির্বাচনে নেতুরা গ্রামপঞ্চায়েত আসনের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী স্বরাজ গিরি। তিনি অভিযোগের আঙুল তুলেছেন স্থানীয় বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে। স্বরাজ বাবুর আভিযোগ এর আগেও বহুবার বিজেপির কর্মীরা তাকে প্রান নাশের হুমকি দিয়েছিলেন। এমনকি তার স্ত্রীকেও আশ্লীল ভাষায় গালি গালাজ দেবার অভিযোগ করেছেন তিনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ৬ই মে প্রায় রাত ২ টো নাগাদ স্বরাজ বাবু তার মাটির বাড়ীতে খড়ের ছাউনি দেওয়া ঘরে ঘুমাচ্ছিলেন। তার স্ত্রী এবং ছেলে অন্য ঘরে ঘুমাচ্ছিলেন। রাত ২ টো নাগাদ স্বরাজ বাবুর স্ত্রী তার ছেলেকে নিয়ে বাইরে বেড়িয়েছিলেন প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে। তারা দেখেন স্বরাজ বাবুর ঘর থেকে ধুঁয়া বেড় হচ্ছে এবং আগুন জ্বলছে। তিনি চিৎকার করে স্বরাজ বাবুকে ডেকে তোলেন ।স্বরাজ বাবু তড়িঘড়ি ঘর থেকে বের হন এবং তার ঘর সংলগ্ন গোয়াল থেকে তিনটি গরুকে বার করে নিয়ে আসেন। চিৎকার করে প্রতিবেশীদের ডাকেন। তাদের চেষ্টায় স্বরাজ বাবুর ঘরের আগুন নেভানো হয়।

উল্লেখ্য স্বরাজ গিরি এবার পঞ্চায়েত নির্বাচনে আগুইবনি গ্রামপঞ্চায়েতের নেতুরা সংসদ থেকে গ্রামপঞ্চায়েত আসনে তৃণমূলের হয়ে দাঁড়িয়েছেন।এই আসনে তার সঙ্গে সারাসরি লড়াই বিজেপির। স্বরাজ বাবুর অভিযোগ বিজেপির ৫-৬ জন এলাকার ছেলে তাকে এর আগেও বহুবার প্রান নাশের হুমকি দিয়ে আসছিল। তার স্ত্রীকেও গালিগালাজ করত। এরা এলাকায় ছিনতাইবাজ, তোলাবাজ।

স্বরাজ বাবু জানিয়েছেন, যেহেতু তিনি তৃণমূলের হয়ে প্রার্থী হয়েছেন তাই তাকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করেছিল বিজেপির লোকেরা। তিনি জানিয়েছেন বিজেপির ৫ জনের নামে থানায় অবভিযোগ দায়ের করছেন। যদিও বিজেপির পক্ষ থেকে অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

আগুইবনি তৃণমূল অঞ্চল সভাপতি জগদিশ মাহাতো বলেন, “বিজেপির ছেলেরাই ঘটনা ঘটিয়েছে।ওরা এলাকায় ছিনতাইবাজ বলেই পরিচিত।এখন বিজেপির ছত্রছায়ায় এসেছে।আমাদের ওই প্রার্থীকে এর আগেও প্রান নাশের হুমকি দিয়েছে। এলাকায় অশান্তী পাকানোর চেষ্টা করছে।”

এব্যাপারে বিজেপির জেলা সভাপতি সুখময় শতপথী বলেন, তৃণমুল আমাদের নামে মিথ্যে অভিযোগ করছে। এটা তৃণমূলের গোষ্ঠী দ্বন্দ্বের ফলে হয়েছে। এখন আমাদের বিজেপির উপর দোষ চাপানোর চেষ্টা করছে।

সম্পর্কিত সংবাদ