ব্যারাকপুরে ফ্লেক্স লাগাতে গিয়ে ইলেকট্রিক তারে পৃষ্ট ১ যুবক

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ

৬ই মে উত্তর ২৪ পরগণার ব্যরাকপুর চিড়িয়া মোড় সংলগ্ন জয়ন্তি সিনেমা হলের সামনে ফ্লেক্স বোর্ডে ফ্লেক্স লাগাতে গিয়ে ইলেকট্রিক তারের সাথে পৃষ্ট এক যুবক। যুবকের নাম সমীর রায়(৩৮)। বাবার নাম অনুকুল রায়। বাড়ি নিমতা বেলঘড়িয়া থানার বাসিন্দা।

উল্লেখ্য এদিন বেলা ১টা সময় ব্যরাকপুর চিড়িয়া মোড় সংলগ্ন জয়ন্তি সিনেমা হলের সামনে ফ্লেক্স বোর্ডে উঠে বিজ্ঞাপনের ফ্লেক্স টাঙ্গাতে যান সেই সময় পাশ দিয়ে যাওয়া বিদ্যুতের তারের সংস্পর্শে চলে আসেন সমীর বাবু। কারেন্ট খেয়ে তিনি বেশ কিছুক্ষন সেই তারের সাথেই আটকে থাকেন। কিন্তু চিড়িয়া মোড় ট্রাফিকে উপস্থিত কাঞ্চন বিশ্বাসের কানে খবরটি যাওয়ায় তিনি উদ্বেগ হয়ে ওঠেন এবং তিনি সাথে সাথে ফায়ার বিগ্রেডে খবর দেন । কিছুক্ষনের মধ্যেই ফায়ার বিগ্রডের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর পর সাথে সাথে ইলেকট্রিক সাপলাই থেকে লাইন বিচ্যুত করা হয় তারপর পোলের মাথায় সিঁড়ি লাগিয়ে ওই ব্যক্তিকে নিচে নামান হয়। কিন্তু ততক্ষণে সমীর বাবুর বুক থেকে পেটের কাছে বেশ কিছু চামড়া ঝলসে গেছে। এরপর সিঁড়ি লাগিয়ে ফায়ার বিগ্রেডের কর্মীরা সমীর বাবুকে নিচে নামিয়ে সাথে সাথে চিকিৎসার জন্য স্থানীয় বি এন বোস হাসপাতালে নিয়ে যান।

শুধুমাত্র ব্যারাকপুর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের কর্মী কাঞ্চন বিশ্বাসের তৎপরতায় অল্পের জন্য মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এলেন সমীর রায়। এক্ষেত্রে কাঞ্চন বাবু কিছু না জানালেও আশপাশের মানুষের থেকে জানা যায়। কিছুদিন আগেও ঠিক একই ধরনের ঘটনা ঘটে গিয়েছিল এই ব্যারাকপুর চিড়িয়া মোড় এলাকায় এবং স্থানীয় ব্যারাকপুর পৌরসভা এই বিষয়ে তৎপর না হলে আগামী দিনেও এইরকম বা এর থেকেও মারাত্তক কিছু ঘটে যেতে পারে মনে করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

 

সম্পর্কিত সংবাদ