নির্বাচনী প্রচারে মদন মিত্র

নির্বাচনী প্রচারে মদন মিত্র

পল মৈত্র, দক্ষিন দিনাজপুরঃ

পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রাক্কালে ভোটারদের মন জয় করতে দক্ষিণ দিনাজপুরে নির্বাচনী প্রচারে মদন মিত্র। নির্বাচনের দিনক্ষণ যত এগিয়ে আসছে ততই দক্ষিণ দিনাজপুরে বিরোধী দলের নেতাদের আনাগোনা বেড়েছে। এবার রাজ্যস্তরীয় নেতাদের আগমন নির্বাচনী প্রচারের সেই প্রতিযোগীতার দৌড়ে পিছিয়ে পড়তে নারাজ রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসও। ৫ই মে তৃণমূল নেতা মদন মিত্র প্রথমে দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুরের উদয় অঞ্চলে একটি সভা এবং তারপরে চালুন অঞ্চলে একটি নির্বাচনী সভা করেন। এদিন চালুন অঞ্চলে তৃণমূলের নির্বাচনী সভা থেকে মদন মিত্র প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আক্রমণ করে বলেন পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকক লুঠ হয়ে গেল, নীরব মোদী টাকা নিয়ে চলে গেল। পাশাপাশি নরেন্দ্র মোদী-র পূর্বে বলা দেশের চৌকিদার কথাটিকে কটাক্ষ করে নরেন্দ্র মোদীকে উদ্দেশ্য করে বলেন চৌকিদার জরুরত নেহি, আভি বফাদার জরুরত হ্যায়। এদিন তিনি মুকুল রায়-এর জেলা সফরে তৃণমূল কংগ্রেসকে উদ্দেশ্যে বলে যাওয়া চোর তাড়াতে

এমনকি ডাকাত ডেকে আনার কথার পাল্টা জবাব দিয়ে বলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়কে উদ্দেশ্য করে বলেন উনি ভাল বলতে পারবেন উনি কতখানি ডাকাতি করে নিয়ে গেছেন। এদিন তৃণমূল নেতা মদন মিত্র জানান, খেলোয়াড়দের চাকরিতে কোটা চালু করবার জন্য মমতা ব্যানার্জী চেষ্টা করছেন। বিজেপিকে উপহাস করে নির্বাচনী সভা মঞ্চ থেকে মদন মিত্র বলেন টাকা দিয়ে বিজেপি পতাকা লাগিয়ে নিয়েছে, আগামী ১৭ই মে নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর বিজেপির পতাকা খোলার লোক থাকবে না। এদিনও মদন মিত্রের গলায় শোনা গেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-এর অনুগত হয়ে থাকার ইচ্ছার কথা। তিনি বলেন মন্ত্রী হতে চাই না, সাংসদ হতে চাই না, শুধু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-এর সাথে থাকতে চাই।

উল্লেখ্য এদিন তৃণমূল নেতা মদন মিত্র-র নির্বাচনী সভায় উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের দক্ষিণ দিনাজপুরের জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র, গঙ্গারামপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান প্রশান্ত মিত্র সহ তৃণমূল কংগ্রেসের দলীয় অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। সভা শেষ করে তৃণমূল নেতা মদন মিত্র কলকাতায় ফিরে যান।

You May Share This
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.