দেওয়াল লিখনকে কেন্দ্র করে বিজেপি কর্মীকে তীর বিদ্ধের অভিযোগ তৃনমূলের বিরুদ্ধে

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সন্দীপ ঘোষ, ঝাড়গ্রাম :

দেওয়া লিখন কে কেন্দ্র করে বিজেপি ও তৃণমূলের বচসা। আর সেই বচসা চরম আকার নিলে তৃণমূল কর্মীরা বিজেপি কর্মীদের লক্ষ করে তীর নিক্ষেপ করে। এই ঘটনায় এক বিজেপি কর্মী তীর বিদ্ধ হয়েছে বলে দাবি বিজেপির। আহত ব্যাক্তিকে উদ্ধার করে ঝাড়গ্রাম জেলা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুরে ঝাড়গ্রাম জেলার আগুইবনি অঞ্চলের দু নম্বর বুথ নেতুরা গ্রামে। এদিকে এই ঘটনার কথা অস্বীকার করেছে তৃণমূল।

বিজেপির অভিযোগ, এদিন সকাল থেকেই পঞ্চায়েত নির্বাচনের জন্য দেওয়া লিখন ও ব্যানার টাঙ্গানো হচ্ছিল। সেই সময় তৃণমূলে স্বপন পড়িয়্যার নেতৃত্বে বেশ কিছু লোকজনেরা এসে আমাদের উপর চড়াও হয়ে আমাদের ব্যানার গুলোকে ছিঁড়ে দেওয়া চেষ্টা করে। সেই সময় বিজেপির পক্ষ থেকে প্রতিরোধ করলে দূর্গা সরেন তীর ছুড়তে শুরু করেন। সেই তীর গিয়ে লাগে বিজেপি কর্মী কল্যান রানার বাম চোয়ালে।

বিজেপির লোধাশুলি মন্ডলের মন্ডল সদস্য রায় রঞ্জন রাউত বলেন, আমাদের কর্মীরা দেওয়াল লিখন ও ব্যানার টাঙ্গাতে ছিল। তৃণমূলের নেতা স্বপন পড়িয়্যার নেতৃত্বে বেশ কিছু লোকজন এসে আমাদের ব্যানার গুলোকে ছিঁড়ে দিচ্ছিল। আমরা প্রতিরোধ করতে গেলে আমাদেরকে লক্ষ করে তীর ছুঁড়া শুরু করে। সেই তীর এসে লাগে আমাদের কর্মী কল্যান রানার বাম চোয়ালে। তৃণমূল জেনে গিয়েছে এই হার নিশ্চিত তাই তারা সন্ত্রাস সৃষ্টি করছে।

অন্যদিকে জাম্বনী ব্লকের চিল্কীগড় অঞ্চলের টুলিবড় গ্রামে দেওয়াল দখল করার জন্য সাইড ফর লেখার সময় আচমকায় কয়েকজন বাইক বাহিনী এসে বিজেপি কর্মীদের মারধর বলে অভিযোগ। বিজেপির অভিযোগ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা আমাদের কর্মীদের উপর চড়াও হয়। তাতে ৪ জন বিজেপি কর্মী আহত হয়েছেন। তাদেরকে স্থানীয় চিকিৎসা কেন্দ্রে চিকিৎসা করানো হয়েছে।

এবিষয়ে ঝাড়গ্রাম জেলা বিজেপির সাধারন সম্পাদক সঞ্জিত মাহাত বলেন, তৃণমূল বুঝতে পেরে গেছে তাদের পায়ের তলার মাটি সরে যাচ্ছে তাই তারা এলাকায় সন্ত্রাস সৃষ্টি করছে। কিন্তু তৃণমূলের সন্ত্রাসকে বিজেপি ভয় পাই না।

এক্ষেত্রে ঝাড়গ্রাম জেলা তৃণমূলের সাধারন সম্পাদক দুর্গেশ মল্লদেব, এটা হতেই পারেনা, বিজেপি যে অভিযোগ করছেন সেটা ভিত্তিহীন অভিযোগ। এই ঘটনায় আমাদের কর্মীরা কেউ যুক্ত নয়। আমাদের কর্মীরা শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটের প্রচার করছেন। বিজেপির গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে এই ঘটনা।

সম্পর্কিত সংবাদ