১৪ই মে পঞ্চায়েত ভোট, গননা ১৭-য়

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ

২৬শে এপ্রিল কমিশনকে ফ্যাক্স বার্তা পাঠায় সরকার। সরকারের সুপারিশ মেনে এক দফাতেই হতে যাচ্ছে পঞ্চায়েত ভোট। এমনই খবর রাজ্য নির্বাচন কমিশন সূত্রে। এর দরুন ১৪ মে ভোট এবং ১৬ মে গণনার প্রস্তাব দেওয়া হয়। আর ১৭ মে ভোটগণনা। প্রাথমিক ভাবে সরকারের প্রস্তাবে সায় না থাকলেও, শেষ পর্যন্ত সেই সুপারিশই মেনে নিচ্ছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। শেষমেশ ওই দিনই ভোটগণনার দিন ধার্য করা হয়। এর অর্থ, ৫৮ হাজারের মধ্যে মাত্র ২৩ হাজার বুথেই সশস্ত্র পুলিশ মোতায়েন করা সম্ভব।

প্রথম থেকেই রাজ্য সরকার এক দফায় নির্বাচন সেরে ফেলার পক্ষে। যদিও এদিন কমিশন-রাজ্য বৈঠকে নির্বাচনের দিন নিয়ে কোনও সমাধান সূত্র পাওয়া যায়নি। কারণ কমিশন প্রথম থেকেই বুথে বুথে নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে। ৫৮হাজার বুথে একজন করেও পুলিশ কর্মী মোতায়েন করতে প্রয়োজন ৫৮ হাজার পুলিশ কর্মী। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তারা ৪৬হাজার সশস্ত্র এবং ১২ হাজার লাঠিধারী পুলিশ কর্মী দিতে পারবেন। কিন্তু সেই প্রস্তাবে সায় নেই কমিশনের।

সূত্রের খবর, হাইকোর্ট নির্বাচনের নিরাপত্তা নিয়ে সতর্ক করেছে কমিশনকে। নিরাপত্তার দায় কমিশনের ওপরই দিয়েছে আদালত। আর তা নিয়ে যথেষ্টই চাপে কমিশন। তারা কমপক্ষে ২ দফায় ভোট করার পক্ষপাতী ছিল। অন্যদিকে রাজ্য সরকার রমজান মাসের কথা মাথায় রেখে তাড়াতাড়ি গোটা নির্বাচনী প্রক্রিয়া মেটাতে চায়। ১৬ই মে রমজান মাসের প্রথম দিন। ১৬ তারিখ গণনা সেরে ফেললে রমজান মাসের বাকি দিনগুলিতে নির্বাচন প্রক্রিয়া থাকবে না, এমনটাই সরকারের যুক্তি বলেই জানা যায়।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment