এটিএম থেকে বেরোল বাচ্চাদের খেলনার ৫০০ টাকার নোট

Share Bengal Today's News
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েব ডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ

সম্প্রতি এটিএমগুলিতে নগদ সংকটের রেশ কাটতে না কাটতেই এবার ফের বাচ্চাদের খেলনা নোট বেরোনোর খবর সামনে এল। উত্তরপ্রদেশের বরেলির সুভাষনগরে ইউনাইটেড ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার একটি এটিএম থেকে তিন ব্যক্তি পেলেন ৫০০ টাকার এই নকল নোট।

অশোক পাঠক নামে বরেলির বাসিন্দা টাকা তোলার পর একটি ৫০০ টাকার নকল নোট পান। ওই নোটের ওপর লেখা ‘চিলড্রেন্স ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া’। গত রবিবার সন্ধ্যেয় তিনি সাড়ে ৪ হাজার টাকা এটিএম থেকে তোলেন। এরইমধ্যে একটি ৫০০ টাকার একটি নকল নোট ছিল।

নোটটি অনেকটা ৫০০ টাকার আসল নোটের মতোই দেখতে। তবে এক ঝলক দেখলেই বোঝা যায় যে, সেটি নকল। রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার পরিবর্তে নকল ওই নোটে লেখা ‘চিলড্রেন্স ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া’। নিচের দিকের বাঁদিকে সরকারি চিহ্নের জায়গায় লেখা ‘চুরন লেবেল’। অভিযোগকারী জানান, তিনি একাই নন, আরও দুজন ওই একই ধরনের নকল নোট এটিএম থেকে পেয়েছেন। এটিএমের সিসিটিভি ক্যামেরার সামনে তিনি ওই নকল নোটের ছবি তোলেন এবং কয়েকজনকে ঘটনাটি সম্পর্কে জানান। প্রদীপ উত্তম ও ইন্দ্র কুমার শুক্লা নামে দুই ব্যক্তিও ওই এটিএম থেকে নকল ৫০০ টাকার নোট পান বলে পাঠক জানিয়েছেন।

এক্ষেত্রে অভিযোগকারী সহ আরও ৩ জন ব্যাঙ্কের ব্র্যাঞ্চ ম্যানেজারের কাছে অভিযোগ জানান। তাঁরা এটিএম রিসিপ্টের ফটোকপি এবং নকল নোটগুলি ব্যাঙ্ক ম্যানেজারকে জমা দিয়েছেন। ম্যানেজার বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানোর কথা বলেছেন।

ব্যাঙ্ক ম্যানেজার বলেন, এটিএমে টাকা ভরার দায়িত্ব এজেন্সির। ব্যাঙ্ক এই কাজ সরাসরি করে না। তিনি বলেন, পরেরদিন সোমবার এটিএমটির সমস্ত নোট পরীক্ষা করা হয়। কিন্তু কোনও নকল নোট পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে ব্যাঙ্কের প্রধান দফতর কলকাতায় তিনি একটি রিপোর্ট পাঠিয়েছেন।

উল্লেখ্য, চুরন লেবেল মার্কা এই নকল নোট এটিএম থেকে বেরোনোর ঘটনা নতুন নয়। গত বছরই দিল্লির দুটি এটিএম থেকে ২০০০ টাকার নকল নোট বেরিয়েছিল।

সম্পর্কিত সংবাদ