বাংলাদেশের আসন্ন বাজেট হবে বিনিয়োগবান্ধব: এনবিআর

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বেঙ্গলটুডে প্রতিনিধি, ঢাকা:

আগামী ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট ব্যবসা এবং বিনিয়োগবান্ধব হবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূইয়া। তিনি বলেন, ‘ব্যবসায়ীদের মতামত নিয়ে এবারের বাজেটের আকার বাড়ানো হচ্ছে। এর মূল লক্ষ্য ব্যবসা ও বিনিয়োগ বাড়ানো। বিনিয়োগ বলতে কেবল সরকারি বিনিয়োগ নয়, বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়াতে হবে। আমরা সেই লক্ষ্য নিয়ে বাজেট প্রস্তুত করছি।’ ২১শে এপ্রিল চট্টগ্রামে চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র (সিসিসিআই) নেতৃবৃন্দের সঙ্গে প্রাক-বাজেট মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, সরকারি বিনিয়োগের বেশিরভাগ চলে যায় অবকাঠামো উন্নয়নে। কিন্তু বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়লে কর্মসংস্থান বাড়ে, শিল্পায়ন হয়। এর বহুমুখী প্রভাব অর্থনীতিতে পড়ে। তাই বেসরকারি বিনিয়োগকে উৎসাহিত করা হবে।

ব্যবসায়ীদের সঠিকভাবে কর প্রদানের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) বাড়ছে কিন্তু করের পরিমাণ বাড়ছে না। এর অর্থ আমরা সবাই কর দিচ্ছি না। এই সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। ব্যবসায়ীদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষ যারা করযোগ্য তাদেরকেও সঠিকভাবে কর দেওয়া রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব। তৈরি পোশাকের বাইরে পোল্ট্রি শিল্পসহ আরো কিছু শিল্পের ক্ষেত্রে কাঁচামাল আমদানিতে শুল্কমূক্ত সুবিধা প্রদানের চিন্তাভাবনা রয়েছে বলে তিনি জানান। সিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে কাঁচামাল ও মেশিনারি পার্টস আমদানির ক্ষেত্রে অগ্রিম কর প্রত্যাহারের প্রস্তাব করেন। এর আগে অন্য এক প্রাক-বাজেট আলোচনায় চট্টগ্রাম ওম্যান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (সিডব্লিউসিসিআই) নারীদের করমূক্ত আয়ের সীমা ৩ লাখ থেকে বাড়িয়ে ৫ লাখ টাকা করার প্রস্তাব দেয়। সিসিসিআইয়ের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় সংগঠনের সভাপতি মাহবুবুল আলম, এনবিআরের সদস্য রেজাউল হাসান, ফিরোজ শাহ আলম ও কানন কুমার রায় উপস্থিত ছিলেন।

সম্পর্কিত সংবাদ