নতুন নাম নিয়ে আবার ফিরে আসছে হারিয়ে যাওয়া সোশ্যাল নেটওয়াকিং অ্যাপ

নতুন নাম নিয়ে আবার ফিরে আসছে হারিয়ে যাওয়া সোশ্যাল নেটওয়াকিং অ্যাপ

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ

২০১৪ সালের ৩০শে সেপ্টেম্বর চিরতরে বন্ধ হয়ে যাওয়া সোশ্যাল নেটওয়াকিং অ্যাপ ‘অরকুট’ নতুন নাম নিয়ে ফের ফিরে আসতে চলেছে। এক সময় এই অ্যাপ বন্ধুত্ব, বিয়ে, প্রেম, বিচ্ছেদ প্রভৃতি সকল কিছুর স্বাক্ষি ছিল। কিন্তু প্রযুক্তির সাথে সাথে ফেসবুক, টুইটার, হোয়াটস্যাপ আসায় ধীরে ধীরে অবলুপ্ত হয়ে যায় এই অ্যাপটি।

সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, সম্প্রতি মার্ক জুকারবার্গের ফেসবুক জড়িয়ে পড়েছে ব্যবহারকারীদের তথ্য ফাঁসের অভিযোগে। আর সেই সুযোগেই যেন আবারও আবির্ভূত হতে চলেছে অরকুট।

‘অরকুট’ এই সোশ্যাল অ্যাপটির স্রষ্টা, অরকুট বাইয়ুকোটেন। আর তার নামানুসারেই নাম হয় অরকুটের। ২০০৪ সালের শুরুতেই লঞ্চ হয়েছিল অরকুট। সেই সময়ে তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ছিল ‘নিং’ নামে একটি অ্যাপ। পাশাপাশি ছিল ফেসবুক ও মাইস্পেস। তবে এবার অরকুট নতুন করে লঞ্চ হয়েছে ‘হ্যালো’ নাম নিয়ে। আগে, অরকুটের হেডকোয়াটার ছিল ব্রাজিলে। কিন্তু, এবার অরকুট বাইয়ুকোটেন তাঁর হেডকোয়াটার্স নিয়ে গিয়েছেন স্যান ফ্রানসিস্কোয়।

এবার ভারতেও এই ‘হ্যালো’ অ্যাপ পাওয়া যাবে বলে জানা গিয়েছে। আর এই অ্যাপটিতে একজন ব্যবহারকারী নিজের পছন্দের যে কোনও ক্যাটাগরিতে যোগ দিতে পারেন। হ্যালো-তে ১০০০-এরও বেশি কমিউনিটি রয়েছে। সঙ্গে একশোরও বেশি ‘পারসোনা ক্যাটাগরি’। যেমন, ব্যবহারকারী পর্যটক, না ফোটোগ্রাফার, ক্লাবার, নাকি অন্য কিছু। তাও ব্যবহার করতে পারেন।

প্রসঙ্গত, ইউনেস্কো থেকে গুগল-কে বলা হয়েছিল অরকুট একেবারে বন্ধ না করে, এই সংস্থাকে দিয়ে দিতে। বিশ্বের প্রথম ‘সোশ্যাল নেটওয়ারকিং সাইট’ হিসেবে তাকে ‘হেরিটেজ’ তকমা দেওয়ার জন্যই এমন দাবি করে ইউনেস্কো।

You May Share This

Leave a Reply