নির্বাচনের আগেই ঝাড়গ্রাম ব্লকের দুটি গ্রামপঞ্চায়েত সমিতি ও ১৯ টি পঞ্চায়েত সমিতির আসনে বীনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয় তৃণমূল কংগ্রেসের

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সন্দীপ ঘোষ, ঝাড়গ্রামঃ

পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগেই ঝাড়গ্রাম ব্লকের দুটি গ্রামপঞ্চায়েত সমিতি ও ১৯ টি পঞ্চায়েত সমিতির আসনে বীনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয় লাভ করল তৃণমূল কংগ্রেস। ঝাড়গ্রামের রাধানগর গ্রামপঞ্চায়েত ও সাপধরা গ্রাম পঞ্চায়েতের ২ টি পঞ্চায়েত সমিতি ও ১৯ টি গ্রামপঞ্চায়েত আসনে কোনও প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় কার্যত বীনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জায়লাভ করে তৃণমূল কংগ্রসে। আর সেই আনন্দে নির্বাচন শুরুর আগেই আবীর খেলার উৎসব আবহে মেতে উঠেছে ঝাড়গ্রাম ব্লকের সাপধরা গ্রামঞ্চায়েত ও রাধানগর গ্রামপঞ্চায়েতের তৃণমূলের নেতা কর্মীরা।

তৃণমূল সুত্রে জানা যায়, ঝাড়গ্রাম ব্লকের ২২ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির আসনে চিন্ময়ী মারান্ডী ও অন্যটিতে সুবোধ হাঁসদা বীনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয় লাভ করেন। উল্লেখ্য গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে এই দুটি গ্রাম পঞ্চায়েত তৃণমুলের দখলেই ছিল।

রাধানগর গ্রামপঞ্চায়েতের অঞ্চল সভাপতি অশোক মাহাত বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নের ফসল। বিরোধীরা কোনও প্রার্থী খুঁজে পায়নি।

অন্যদিকে ঝাড়গ্রাম জেলা তৃণমূলের সভাপতি অজিত মাইতি বলেন, সিপিআইএম গত ৩৪ বছরে যা করতে পারেনি তৃণমুল কংগ্রেস তা গত ছয় বছরে এই এলাকার অভুতপূর্ব উন্নয়ন করেছে। তাই বিরোধীরা এলাকায় কোনও প্রার্থী খুঁজে পাইনি। যদিও তৃণমূলের দাবী উড়িয়ে দিয়ে বিরোধীদের দাবী তৃণমূলের সন্ত্রাস ও হুমকির কারনেই ভয়ে এই গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার গ্রামপঞ্চায়েত ও পঞ্চায়েত সমিতির সিটে অন্য কোন রাজনৈতিক দল মনোনয়ন জমা দেয়নি।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment