মনোনয়নের প্রথমদিন থেকেই পূর্ব মেদিনীপুরে তৃণমূল-বিজেপির সংঘাত চরমে

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব সংবাদদাতা, বেঙ্গল টুডে:

২রা এপ্রিল সোমবার পঞ্চায়েত ভোটের মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার প্রথম দিন ছিল। আর এই প্রথমদিন থেকেই তৃণমূল-বিজেপির সংঘাত চরম পর্যায় পৌঁছায়। এদিন পশ্চিমবঙ্গের যেকটি জেলায় সংঘর্ষের খবর পাওয়া যায় তাদের মধ্যে প্রথম সারিতে নাম ছিল পূর্ব মেদিনীপুর জেলার।

সুত্রের খবর, মনোনয়নের প্রথম দিন মনোনয়ন পত্র তোলাকে কেন্দ্র করে সুতাহাটা বিডিও অফিস চত্তরে তৃণমূল-বিজেপির ব্যাপক সংঘাত বাঁধে। সেদিন তৃণমূলের বিরুদ্ধে একাধিক বিজেপি কর্মীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছিল। যার মধ্যে আক্রান্ত হন বিজেপির তমলুক জেলা সভাপতি প্রদীপ কুমার দাস, জেলা সাধারন সম্পাদক মানস কুমার রায় সহ অন্যান্যরা। এরপর তাদেরকে মারধরের প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ বিজেপি কর্মীরা সুতাহাটা বাজারে হলদিয়া-মেচেদা রাজ্য সড়ক অবরোধ সহ সুতাহাটা থানার সামনে ধরনা দিয়ে বিক্ষোভ দেখান।

অপরদিকে অভিযোগ ওই একইদিনে খেজুরিতে তৃণমূল কর্মীরা বিজেপি কর্মীকে মারধর করে অপহরন করে। এদিন খেজুরি-২ নম্বর ব্লকে বিজেপি কর্মীরা সর্বদলীয় বৈঠকে যোগ দিতে যাওয়ার সময় পাঁচ বিজেপি কর্মীকে তৃণমূল কর্মীরা মারধর করে অপহরন করে। এমনকি ঘটনার দিন সন্ধ্যে পর্যন্ত তাদের কোনো খোঁজ মেলেনি। এছাড়া এদিন দুপুরে ভগবানপুর-২ ব্লকে বিজেপির মন্ডল সভাপতি কৃষ্ণানন্দ মাইতি ও সাধারন সম্পাদক অপূর্ব খাটুয়া মনোনয়ন তুলতে যান। সেখানে তৃণমূল কর্মীরা তাঁদের ব্যাপক মারধর করেন এবং সন্ধ্যে পর্যন্ত তাদের তৃণমূল কর্মীরা ঘিরে রাখে বলে অভিযোগ।

এর পাশাপাশি ২ রা এপ্রিল রাতে নন্দীগ্রামে এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে তৃণমূল কর্মীরা ব্যাপক মারধর করে বলে অভিযোগ। ৮ মাসের ওই অন্তঃসত্ত্বা বিলু গুড়িয়ায় বিজেপি প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দেওয়ার কথা ছিল। তাই এদিন রাত্রে তৃণমূল কর্মীরা বিলু গুড়িয়ার বাড়ি ভাঙচুর করে ও হামলা চালায়। সবমিলিয়ে আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচন কতটা উত্তপ্ত হতে চলেছে ইতিমধ্যেই জেলায় জেলায় তার আগাম আভাস পাওয়া যাচ্ছে।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment