ভেষজ উদ্যানকে কেন্দ্র করে তৈরী হচ্ছে পার্ক

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সন্দীপ ঘোষ, ঝাড়গ্রামঃ

ভেষজ উদ্যানকে কেন্দ্র করে ঝাড়গ্রামে এই প্রথম তৈরী হচ্ছে পার্ক। পাশাপাশি গোপিবল্লভপুর এক ব্লক প্রশাসন এই পার্ককে নিয়ে গবেষনা কেন্দ্রে বিস্তারিত করতে চাইছে । গোপীবল্লভপুর গ্রামপঞ্চায়েতের অধীন বর্গীডাঙাতে ঝাড়গ্রাম জেলার প্রথম মেডিসন্যাল পার্ক তৈরি হচ্ছে। এর আগে জেলার বিভিন্ন ব্লকে একাধিক ভেষজ গাছের উদ্যান থাকলেও ভেষজ উদ্যান ঘিরে পার্ক এই প্রথম। প্রায় ত্রিশ বিঘা জমির উপর একেবারে গোপিবল্লভপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় বর্গিডাঙাতে শুরু হয়ে গিয়েছে মেডিসন্যাল পার্ক। রক্তকরবী, স্বেতকরবী, চন্দন,পুদিনা,বাদরলাঠি, তুলসি, অর্জুন, আমলকি, অশোক, বিসল্যাকরনী সহ প্রায় একশো পাঁচ রকম বারোশো ওষধি গাছ নিয়ে শুরু হয়েছে মেডিসন্যাল পার্কটি। প্রতিটি গাছের প্লট আলাদা ভাবে করা হয়েছে। নির্দিষ্ট ওই প্লট গুলিতে সেই সব গাছ গুলিকে চিহ্নিত করে নাম, ঔষধি গুনাগুন সম্বলিত বিবরন প্লেট লাগানো হয়েছে।

প্রশাসন সূত্রে খবর, একশো দিনের কাজের প্রকল্পে ২০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ঔষধি বাগানটি তৈরি হয়েছে। বাগান তৈরির কাজে তিন হাজার শ্রম দিবস তৈরি হয়েছে। বাগান টিকে ঘিরে অতি সুন্দর একটি পার্ক তৈরি হচ্ছে। জঙ্গলমহল অ্যাকশন প্ল্যানে ৩০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে গড়ে উঠছে পার্ক। সুন্দর কারুকার্য মন্ডিত গেট। বাগানের ভিতরে হাটর জন্য ফুটপাত, শেড যুক্ত বসার জায়গা এবং লাইটের সুবন্দোবস্ত করা হয়েছে।

এছাড়া আরও জানা যায় এটি কেবলমাত্র একটি ভেষজ উদ্যানই নয় এই বাগান ঘিরে একটা শিক্ষার পরিবেশ গড়ে উঠবে। গবেষক,পড়ুয়ারা সুযোগ পাবে এই বাগনের গাছ গাছালি নিয়ে লেখাপড়া করার। এক দিকে যেমন দর্শনিয় স্থান তেমনই শিক্ষনের একটি জায়গা তৈরি হল এই বাগান ঘিরে। গুপ্ত বৃন্দাবন বলে পরিচিত গোপীবল্লভপুর এক ব্লককে কেন্দ্র করে ব্লক প্রশাসনের উদ্যোগে একটার পর একটা পর্যটন স্থল গড়ে উঠেছে। ইতিমধ্যে গোপীবল্লভপুরে অত্যধুনিক ইকো পার্ক, ভুলনপুরে উর্বর জমিকে কাজে লাগিয়ে ফলের বাগান, কাপাসিয়ায় ফলের বাগান, ঝিল্লিপাখিরালয়কে কেন্দ্র করে পার্ক। এই সহ জায়গা গুলিই বর্তমানে এক একটি পর্যটন স্থল।

এছাড়া গোপীবল্লভপুরে সুবর্নরেখা নদীর ধারে অসাধারন প্রাকৃতিক পরিবেশে রয়েছে হাতিবাড়ি কটেজ। বর্তমানে বর্গিডাঙাতে যে মেডিসন্যাল পার্ক তেরির কাজ শুরু হয়েছে তা সমাপ্ত হলে উপকৃত হবে পড়ুয়া, গবেষক থেকে সবাই। আর তার সাথে সুন্দর পার্ক অবশ্যই বাড়তি পাওয়না। ব্লক প্রশাসন সূত্রে জানা যায় এই বাগানের দেখভাল করবে স্থানীয় স্বসহায়ক দল।

এই বিষয়ে গোপীবল্লভপুর এক ব্লকের বিডিও বিশ্বনাথ চৌধুরী বলেন “ঔষধি বাগান ঘিরে পার্ক জেলায় প্রথম। একটি সুন্দর পর্যটন স্থল যেমন তৈরি হল তেমনই এই মেডিসন্যাল বাগান ঘিরে গবেষনা,পড়াশুনার একটা ক্ষেত্র তৈরি হল।”

অন্যদিকে গোপীবল্লভপুর এক পঞ্চায়েত সমিতির সহকারি সভাপতি সত্যরঞ্জন বারিক বলেন, “ভেষজ এই বাগান ঘিরে শিক্ষনের একটি জায়গা তৈরি হবে। পর্যটকদের যেমন বেড়িয়ে ভাল লাগবে তেমনই গবেষক, পড়ুয়ারা পড়ার সুযোগ পাবেন। আর পার্ক হওয়ার জন্য অত্যন্ত ভালোভাবে ঘুরে ফিরে দেখতে পারবেন সবাই। বসার জায়গাও থাকবে। “

সম্পর্কিত সংবাদ