অবৈধ সম্পর্কে জেরে পিটিয়ে খুন, গ্রেফতার ১

Share Bengal Today's News
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শান্তনু বিশ্বাস, হাড়োয়া:

৩০শে মার্চ হাড়োয়া থানার অন্তর্গত মিমিচি গ্রামে জমি থেকে উদ্ধার এক ব্যক্তির মৃতদেহ। এরপর হাড়োয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করেন।

সুত্রের খবর, ঘটনার দিন হাড়োয়া থানার অন্তর্গত মিমিচি গ্রামের বাসিন্দারা মৃতদেহটি দেখতে পান এরপর তারাই পুলিশে খবর দিলে হাড়োয়া থানার পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করেন এবং ঘটনার তদন্ত শুরু করেন। এছাড়া জানা যায় মৃতের নাম চিরঞ্জিত মন্ডল (২১)।

তদন্ত অনুসারে খবর, বিশ্বজিত মন্ডলের স্ত্রী শিখা মন্ডলের সাথে প্রায় দেড় বছর ধরে দূরসম্পেকের শ্যালা চিরঞ্জিব মন্ডলের ভালোবাসা শুরু হয়, প্রায় বাড়ীতে এসে চিরঞ্জিত মন্ডল বিয়ে করার হুমকি দিত শিখা দেবীর স্বামীকে। যদিও বর্তমানে বিশ্বজিত মন্ডল ও শিখা মন্ডলের ৭ বছরের একটি মেয়ে আছে এবং শিখা দেবী ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা। পাশাপাশি বাড়ি এসে বারবার বিশ্বজিত মন্ডলকে তাঁর স্ত্রীকে ‘ডিফোর্স’ দেওয়ার জন্যও হুমকি দিত বলে জানা যায়। এমনকি ২৯ শে মার্চ বিশ্বজিত মন্ডলের বাড়ি এসে তাঁর স্ত্রীকে ‘ডিফোর্স’ দেওয়ার কথা বলায় চিরঞ্জিত মন্ডলের সাথে বিশ্বজিত মন্ডলের বচসা শুরু হয়। এরপর তাদের মধ্যে বচসা ক্রমে বারলে বিশ্বজিত মন্ডল বাঁশ দিয়ে আঘাত করলে মাটিতে লুটিয়ে পরে চিরঞ্জিত মন্ডল। এরপর তাকে পাশের ঝিঙে চাষের জমিতে ফেলে দেওয়া চিরঞ্জিত মন্ডলের দেহকে।

পুলিশি সুত্রে খবর, মিনাখাঁ থানার অন্তর্গত মিমিচি গ্রামের বাসিন্দা চিরঞ্জিত মন্ডলের পরিবার হাড়োয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করলে তদন্তে নেমে শিখা মন্ডলের স্বামী বিশ্বজিত মন্ডলকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃতকে ১লা এপ্রিল বসিরহাট আদালতে পাঠানো হলে তদন্ত সাপেক্ষে তাদের পুলিশি হেফাজতে চাওয়া হবে। 

সম্পর্কিত সংবাদ