দুর্গাপুর থেকে আসানসোল যাওয়ার পথে লকেট চট্টোপাধ্যায়কে আটকালো পুলিশ

দুর্গাপুর থেকে আসানসোল যাওয়ার পথে লকেট চট্টোপাধ্যায়কে আটকালো পুলিশ

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ

২৯ শে মার্চ দুর্গাপুর থেকে আসানসোল যাওয়ার পথে বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়কে আটকানো হল। আসানসোল-দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটের ডিসি (পূর্ব) অভিষেক মোদির নেতৃত্বে লকেটকে আটকায় পুলিশ। সাথে সাথেই পুলিশ ও বিজিপি কর্মীদের মধ্যে বচসা শুরু হয়। বচসার জেরে লকেট অসুস্থ হয়ে পড়লে পুলিশি পাহারায় দু’নম্বর জাতীয় সড়ক ধরে তাঁকে কলকাতায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

উল্ল্যেখ্য , রানিগঞ্জে গোষ্ঠী সংঘর্ষের জেরে এক বিজেপি কর্মী জখম হওয়ায় , তাঁকে দুর্গাপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আজ দুপুরে সেই কর্মীকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন লকেট। সেখানে আগে থেকেই হাসপাতালের সামনে ভিড় করেছিলেন বিজেপি -র মহিলা মোর্চার কর্মীরা এবং তাঁদের সঙ্গে ছিলেন বিজেপি -র আসানসোল জেলা সভাপতি লক্ষ্মণ ঘোড়ুই সহ অন্য নেতা কর্মীরা। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে অভিষেক মোদির নেতৃত্বে হাসপাতালের বাইরে মোতায়েন ছিল বিশাল পুলিশ বাহিনী ।

জখম দলীয় কর্মীকে দেখে হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে লকেট আসানসোলের দিকে যেতে চাইলে পুলিশ তাঁকে আটকায় । তৎক্ষণাৎ পুলিশের সাথে বচসা শুরু হয়। প্রতিবাদে হাসপাতালের সামনে ধর্নায় বসেন লকেট। পুলিশের তরফে তাঁকে বলা হয় নিরাপত্তার কারণেই আসানসোলে কোনও নেতাকেই ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।

অভিষেক মোদি বলেন, “লকেট চ্যাটার্জি আসানসোলে গেলে ১৪৪ ধারা বিঘ্নিত হতে পারে। তাই তাঁকে দুর্গাপুরেই আটকানো হয়েছে।” লকেট চট্টোপাধ্যায়ের অভিযোগ, “পুলিশ আমাকে হাসপাতালের ভিতরেই আটকানোর চেষ্টা করে। যার ফলে অন্য রোগীদের অসুবিধা হয়।”

You May Share This
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *