ঝাড়গ্রাম জেলায় তৈরী হতে চলেছে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সন্দীপ ঘোষ, ঝাড়গ্রাম:

ঝাড়গ্রাম জেলা হাসপাতালকে ঘিরে নতুন করে তৈরী হতে চলেছে মেডিক্যাল কলেজ। অরন্য সুন্দরী ঝাড়গ্রাম জেলার মুকুটে আরও একটি নতুন পালক সংযোজিত হতে চলেছে। ঝাড়গ্রাম জেলা হাসপাতাল ও জেলা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালকে ঘিরে তৈরী হতে চলেছে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। এর মধ্যে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর থেকে এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশিকা এসে গিয়েছে ঝাড়গ্রাম জেলা প্রশাসনের কাছে। এই বিষয়ে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর থেকে ২৭ শে মার্চ ঝাড়গ্রাম জেলা শাসকের কাছে এক নির্দেশিকা এসে পৌঁছায়। যার মেমো নম্বর (HF\O\MERT\370\W-14\2018 )।

প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, ওই নির্দেশিকায় ঝাড়গ্রামের জেলা শাসকে ঝাড়গ্রাম জেলা সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালের জায়গা সহ কুড়ি একর জায়গা দেখার কথা বলা হয়েছে। যেখানে মেডিক্যাল কলেজের পরিকাঠামো সহ কর্মী আবাসন গড়ে তোলা যাবে।সে ক্ষেত্রে দুটি আলাদা জায়গা হলেও অসুবিধা নেই তবে দুটি জায়গার মধ্যে ব্যবধান দশ কিমির মধ্যে হতে হবে। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে ইতিমধ্যে ঝাড়গ্রামের জেলা শাসক ঝাড়গ্রাম হাসপাতাল সংলগ্ন জামির বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছেন। জামি দেখার কাজ হয়ে গেল রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের একটি দল পরিদর্শনে আসবে। তারাই ঠিক করবেন কোন জায়গায় মেডিক্যাল কলেজ গড়ে উঠবে।

এই বিষয়ে ঝাড়গ্রামের জেলা শাসক আর অর্জুন বলেন “২৭ শে মার্চ আমার কাছে ঝাড়গ্রামে মেডিক্যাল কলেজ গড়ার জন্য জমি দেখার নির্দেশিকা স্বাস্থ্য দফতরের কাছ থেকে এসেছে।আমরা ঝাড়গ্রাম জেলা সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালের কাছে পিঠে কয়েকটি জমি দেখে রাখব। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের টিম এসে ঠিক করবে কোথায় গড়া হবে মেডিক্যাল কলেজটি।” ঝাড়গ্রাম জেলা হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে ঝাড়গ্রাম জেলা হাসপাতালটির পুরতন ভবন, সুপারস্পেশালিটি হাসপাতাল সহ কর্মী আবাসন সব মিলিয়ে মোট ৯.৭৭ একর জমির উপরে রয়েছে। ঝাড়গ্রাম জেলা সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালে মোট শয্যা রয়েছে ৪৬০টি। ঝাড়গ্রাম সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালটিতে বর্তমানে উন্নতমানের চিকিৎসা পরিষেবা দেবার পরিকাঠামো গড়ে উঠেছে। সিসিইউ, এসএনসিএউ, ডাইলেসিস, সিটিস্ক্যান সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিনামূল্যে দারুন পরিষেবা পাচ্ছেন সধারণ মানুষ। দৈনিক বর্হিবিভাগে প্রায় দেড়হাজার মানুষ চিকিৎসা করাতে আসেন।

কেবলমাত্র ঝাড়গ্রাম নয় পাশের জেলা বাঁকুড়া এবং পরশি রাজ্য ঝাড়খন্ড, ওড়িশা থেকেও বহু মানুষ ঝাড়গ্রাম হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা পরিষেবা পান। ঝাড়গ্রাম হাসপাতালে শুরু হয়ে গিয়েছে নার্সিং ট্রেনিং কলেজ। ঝাড়গ্রাম জেলার নয়াগ্রাম,গোপীবল্লভপুর এর ব্লকে সাফল্যের সাথে চলছে সুপারস্পেশালিটি হাসপাতাল দুটি। ঝাড়গ্রাম জেলা সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসার যে পরিকাঠামো রয়েছে তাতে মেডিক্যাল কলেজ গড়ে উঠলে এর আরো শ্রীবৃদ্ধি ঘটবে বলে মনে করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য গত বছর ৪ঠা এপ্রিল রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরে ঝাড়গ্রাম নতুন জেলা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে। মাত্র এক বছরের মধ্যে ঝাড়গ্রাম জেলা ঘিরে একের পর এক পদক্ষেপ নিচ্ছে রাজ্য। ঝাড়গ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় গড়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য জমি বস্তান্তর হয়ে গিয়েছে। ঝাড়গ্রাম জেলা পরিষদ হয়েছে। পুলিশ লাইনের কাজ চলছে। সবমিলিয়ে ঝাড়গ্রাম জেলা সবদিক থেকে পরিপূর্নতার দিকে যাচ্ছে। ঝাড়গ্রামে এবার মেডিক্যাল কলেজে যেন অনেকটাই উন্নয়নের বৃত্ত সম্পুর্ন হওয়ার লক্ষে অনেক ধাপ এগিয়ে গেল। ঝাড়গ্রামে মেডিক্যাল কলেজ হয়ে গেলে একদিকে যেমন জঙ্গলমহলের ছেলে মেয়েদের চিকিৎসা বিঞ্জান নিয়ে পড়াশুনার জন্য আর কলকতার মতো দূরবর্তী জায়গায় যেতে হবেনা। এলাকায় সধারণ মনষকেও অর্থ খরচ করে আর বাইরে যেতে হবে না।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment