ঘুষ নেওয়ায় সাব-রেজিস্ট্রার বরখাস্ত

Share Bengal Today's News
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বেঙ্গলটুডে প্রতিনিধি, ঢাকা:

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রার এছহাক আলী মন্ডলের প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহণের ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করে নারায়ণগঞ্জ জেলা রেজিস্ট্রার (ডিআর) সাবিকুন্নাহার ২৫শে মার্চ বলেন, ঘুষ গ্রহণের ঘটনায় এছহাক আলী মন্ডলকে সাময়িক বরখাস্ত করেন ইন্সপেক্টর জেনারেল অফ রেজিস্ট্রেশন (আইজিআর) খান মো. আব্দুল মান্নান। তিনি বলেন, ২৫ মার্চ সকালেই সাব-রেজিস্ট্রার এসহাক আলী মন্ডলকে আড়াইহাজার থেকে প্রত্যাহার করে দেওয়া হয়েছে। তার পরিবর্তে রূপগঞ্জের সাব-রেজিস্ট্রার রেজাউল করিম বকশিকে অতিরিক্ত দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

দলিল লেখক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিন ভূঁইয়া জানান, একজন স্থায়ী সাব-রেজিস্ট্রার পোস্টিং দেওয়ার জন্য আইজিআর-র কাছে দাবি তোলা হয়। তিনি আমাদের দাবি দ্রুত পূরণের আশ্বাস দিয়েছেন। এরপর দলিল লেখকদের কলম বিরতি স্থগিত ঘোষণা করা হয়।

প্রসঙ্গত, সরকারি অফিসে বসে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রার এছহাক আলী মন্ডলের ঘুষ গ্রহণের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হলে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়। ওই ভিডিওতে দেখা যায়, টেবিলের ওপর কম্পিউটার। রয়েছে মুঠোফোন ও ফাইলের স্তুপ। প্রতিটি ফাইলে স্বাক্ষর করার আগে টাকা গুনে ড্রয়ারে রাখেন তিনি। পাশ থেকে একজন ফাইল এগিয়ে দিচ্ছেন। এর মধ্যে একজন টাকা কম দেয়ায় টাকা ছুড়ে দিচ্ছেন। পরে আবার তার চাহিদা মত টাকা ড্রয়ারে রাখছেন। ড্রয়ারে টাকার অনেকগুলো নোট জমার পর নিজ হাতে তিনি প্যান্টের পকেটে গুজে রাখছেন। সরকারি কক্ষে বসে এভাবেই ঘুষের কারবার চালাচ্ছেন আড়াইহাজার উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রার এছহাক আলী মন্ডল। বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশ পেলে সর্বত্র সমালোচনার ঝড় ওঠে। এর জেরেই ২৫শে মার্চ এছহাক আলী মন্ডলকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

সম্পর্কিত সংবাদ