ইউপিতে নগদ টাকার পরিবর্তে ডাক্তারি পরীক্ষায় পাশের পর্দাফাঁস করলেন এসটিএফ

Share Bengal Today's News
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডে:

উত্তরপ্রদেশের মুজাফফরনগর মেডিক্যাল কলেজে বিপুল টাকার বিনিময়ে লিখে দেওয়া হয় এমবিবিএস পরীক্ষার উত্তরপত্র। এভাবেই কয়েক বছর ধরে ডাক্তারি পাশ করেছেন কয়েকশো পড়ুয়া। এবার এই কেলেঙ্কারির পর্দফাঁস করলেন এসটিএফ।

সুত্রের খবর, মুজাফফরনগর মেডিক্যাল কলেজের ২ জন ছাত্রকে জেরা করতেই উঠে আসে আরও ৯ জনের নাম। এর মধ্যে ৬ জন মেরঠের চৌধুরি চরণ সিং ইউনিভার্সিটির আধিকারিক। ফলে জাল অনেক দূর ছড়িয়েছে বলেই মনে করছেন ইউপি এসটিএফ। পাশাপাশি তাদের দাবী, ২০১৪ সাল থেকে চলছে এই র‍্যাকেট। এমবিবিএস-এর পরীক্ষায় উত্তরপত্র লিখে দেওয়ার জন্য নেওয়া হতো কমপক্ষে ১ লাখ টাকা। এভাবে কমপক্ষে ৬০০ নিম্নমেধার ছাত্র ডাক্তারি পাশ করে বেরিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজ থেকে।

অপরদিকে এসটিএফের দাবী, ১ থেকে দেড় লাখ টাকার বিনিময়ে বিশেষজ্ঞদের লেখা উত্তরপত্র বিশ্বদ্যিালয়ে জমা হওয়া উত্তরপত্রের বান্ডিলে রেখে দিত আধিকারিকরা। মেডিক্যালের অন্যান্য কোর্সের পড়ুয়াদের কাছ থেকেও এর জন্য নেওয়া হতো ৩০-৪০ হাজার টাকা।

যদিও পুলিশ এই ঘটনার জেরে ইতিমধ্যে ২ জনকে গ্রেফতার করেন। তাদের মধ্যে একজন গুড়গাঁওয়ের এক বিশিষ্ট চিকিৎসকের ছেলে। অন্যজন পাঞ্জাবের সাংরুর জেলার। এরা দুজনেই ১ লাখ টাকা দিয়েছিল বলে জানিয়েছেন ইউপি এসটিএফের মেরঠ রিজিয়নের প্রধান ব্রিজেশ সিং।

সম্পর্কিত সংবাদ