প্রনয়ে মত্ত শিক্ষক, অপরের স্ত্রী কে নিয়ে পগার পার হতে গিয়ে ধরা পরে জুটলো গনপিটুনি

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পল মৈত্র, দক্ষিণ দিনাজপুর:

অপরের স্ত্রী কে নিয়ে পালাতে গিয়ে স্টেশন থেকে হাতেনাতে ধরা পড়ল এক শিক্ষক। ওই স্ত্রীর স্বামী তাদের হাতে নাতে ধরে ফেলে। ধৃত ওই শিক্ষক সহ মহিলাকে আটক করে পুলিশ। ধৃত ওই শিক্ষকের নাম বিক্রমজিৎ বিশ্বাস। বাড়ি দক্ষিণ চব্বিশ পরগনায়। ভাড়া নিয়ে থাকতেন বুনিয়াদপুরে। কুমারগঞ্জ থানার দাশুল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক তিনি। ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে এর আগেও অবৈধ সম্পর্কের ঘটনা সামনে এসেছে বলেই খবর। এদিকে ঘটনায় এলাকাবাসীরা ওই শিক্ষকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে কুমারগঞ্জ থানার পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১৭ ই মার্চ স্কুল ছুটির পর ওই শিক্ষক বংশীহারীর বুনিয়াদপুর এলাকার বাসিন্দা এক বিবাহিতা মহিলাকে মল্লিকপুর স্টেশনে নিয়ে যায়। উদ্দেশ্য ছিলো মহিলাকে নিয়ে কলকাতা পালিয়ে যাওয়ার। অপরদিকে ওই মহিলার স্বামীর কাছে এই খবরটি চলে যায়। এরপরেই স্টেশনে অপেক্ষারত শিক্ষক ও মহিলাকে ধরে দাশুল স্কুল চত্বরে নিয়ে আসা হয়। ক্ষুব্ধ জনতার পক্ষ থেকে দেওয়া হয় গণপিটুনি। এরপর পুলিশে খবর দেওয়া হলে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন কুমারগঞ্জ থানার পুলিশ। পুলিশ গিয়ে ওই দু’জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। যদিও পরে ওই মহিলাকে ছেড়ে দেওয়া হয় বলে জানা যায়।

এবিষয়ে কুমারগঞ্জ থানার ওসি পার্থ ঝাঁ জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে এক শিক্ষককে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সম্পর্কিত সংবাদ