28 C
Kolkata
Sunday, May 26, 2024
spot_img

অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ডিজিট্যাল মিডিয়া এথিক্স রুলস, ২০২১ এর উপর ভার্চুয়াল ওয়ার্কশপ

নিজস্ব প্রতিনিধি, ১৪ই জুলাই ২০২১, কলকাতাঃ বুধবার ১৪ই জুলাই সেন্ট্রাল মিনিস্ট্রি অফ ইনফরমেশন এন্ড ব্রডকাস্টিং অর্থাৎ কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক দপ্তর থেকে একটি ভার্চুয়াল আলোচনা সভার আয়োজন করা হয় বেলা 3টের সময়। আলোচনার বিষয় বস্তু ছিল "ডিজিটাল মিডিয়া এথিক্স রুলস" ২০২১ অর্থাৎ "ডিজিটাল মিডিয়ার নীতি ও নিয়ম - ২০২১"

আলোচনায় পৌরহিত্য করেন কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক দপ্তরের যুগ্ম সচিব বিক্রম সহায়। উক্ত আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন একদিকে যেমন উত্তর পূর্ব রাজ্যের মধ্যে যেমন প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরোর পক্ষ থেকে উত্তর পূর্ব অঞ্চলের এ.ডি.জি., এস. এন. প্রধান সহ কোলকাতা প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরোর এ.ডি.জি., জেন নামচু,ডেপুটি ডিরেক্টর, চিত্রা গুপ্তা ও সৃজাতা সাহা সাহু এবং ওড়িশা, পশ্চিমবঙ্গ, অসম, মনিপুরের মত রাজ্যের শিক্ষাবিদ আবার এরই পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন উক্ত রাজ্যগুলি থেকে প্রায় ৩০০ সাংবাদিক। এদিন সকলের উদ্দেশ্যে বলতে গিয়ে বিক্রম সহায় বলেন, "অভিযোগ নিরসন ব্যবস্থাটি ডিজিটাল মিডিয়া এথিক্স কোড -২০১২ এর মূল এবং সাধারণ মানুষের সুবিধার জন্য এটি একটি নাগরিক কেন্দ্রিক নিয়ন্ত্রণ হিসাবে প্রণীত হয়েছে।" এই ভার্চুয়াল আলোচনাটি আয়োজন করে ভারত সরকারের "প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো", গুয়াহাটি শাখা।

পিআইবি (প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো) র উদ্যোগে এই আলোচনা সভায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে প্রথম ও একমাত্র নিবন্ধভুক্ত ডিজিট্যাল মাধ্যমের সাংবাদিকদের সংগঠন,"ডিজিটাল মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশন" এর পক্ষ্য থেকে উক্ত সংগঠনের সভাপতি অরিন্দম রায়চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। সেখানে ডিজিট্যাল মাধ্যমের সাংবাদিকদের সগঠনের পক্ষ থেকে তিনি প্রতিনিধিত্ব করেন। এই আলোচনা সভায়, ডিজিটাল সংবাদ প্রকাশক এবং ওটিটি প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কিত নিয়মের মূল বৈশিষ্ট্য তুলে ধরে কেন্দ্রীয় যগ্ম সচিব বিক্রম সহায় বলেন, " 'ডিজিটাল মিডিয়া এথিক্স কোড - ২০২১' এর ফ্রেমিংটি খুব প্রয়োজনীয় ছিল, কারন বিপুল সংখ্যক অভিযোগ, নানা সময় নির্বাচিত প্রতিনিধিদের প্রতিনিধিত্বের মাধ্যমে ইতিমধ্যেই এসেছে এমনকি বিভিন্ন সময় উচ্চ আদালত ও সর্বোচ্চ আদালতে যা বিচারাধীন, এবং এই বিষয় মিডিয়ারই বা কি মত তাই জানতে এই আলচনা খবই প্রয়োজন। মুলত এই আলোচনা আগামী দিনে একটি শক্তিশালী পরিকাঠামো গড়ে তোলাই একমাত্র লক্ষ্য"

এই বিষয় বলতে গিয়ে শ্রী সহায় আরও বলেন, "ডিজিট্যাল মিডিয়া মাধ্যমও প্রচলিত মিডিয়া মতই মুলত দুইটি আইনকে সামনে রেখে এগোতে হবে আর যা হল, ১) "প্রেস কাউন্সিল আইন 1978 " এবং অপরটি হলো ২)"কেবল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক (নিয়ন্ত্রণ) আইন, 1995"। এই দিনের আলোচনা সভায় প্রশ্ন-উত্তর পর্বে ডিজিট্যাল মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অরিন্দম রায়চৌধুরীর একটি অনুরোধে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক দপ্তরের যুগ্ম সচিব বিক্রম সহায় আশ্বাস দেন, আগামী দিনে পশ্চিমবঙ্গের ডিজিটাল মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশনের সাপ্তাহিক আলোচনা সভায় পিআইবি-র পূর্বাঞ্চলের তরফ থেকে কোন নির্দিষ্ট কর্মকর্তা সরকারী ভাবে হাজির থাকবেন এবং সংগঠনের সকল সাংবাদিক সদস্যকে সঠিক কেন্দ্রীয় আইন নিয়ে বিশদে বোঝাবেন। আগামী দিনে এই পদক্ষেপে অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরা খুবই উপকৃত হবেন তা বলাই বাহুল্য।

এই দিনের এই আলোচনা সভাটি সঞ্চলনার দায়িত্বে ছিলেন গুয়াহাটি থেকে উক্ত এলাকা প্রদর্শনী কর্মকর্তা, হীরামনি দাস এবং মিডিয়া এবং যোগাযোগ কর্মকর্তা, গোপজিৎ দাস ও সর্বোপরি সম্পূর্ণ করমশালাটি পরিচালনা করে গুয়াহাটি প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো।

Related Articles

Stay Connected

17,141FansLike
3,912FollowersFollow
21,000SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

Latest Articles