সৌদি আরব থেকে উদ্ধার হায়দরাবাদের যুবতি

Share Bengal Today's News
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গলটুডেঃ

ভারতীয় দূতাবাসের চেষ্টায় উদ্ধার করা হল সৌদি আরবে পাচার হয়ে যাওয়া হায়দরাবাদের এক যুবতিকে। মূলত চাকরির দেবার নাম করে নিয়ে গিয়ে তাঁকে দিয়ে অমানবিক পরিশ্রম করানো হত। একই সময়ে তিনটি বাড়িতে পরিচারিকার কাজে নিযুক্ত করা হয়েছিল। এমনকি পর্যাপ্ত পরিমান খাবারও তিনি পেতেন না। অসুস্থ হলে চিকিৎসা করানো হত না। এছাড়া সেখানে বিয়েবাড়ির মতো বড় অনুষ্ঠানে খাবারের জন্য ভিক্ষা করতে যেতে বলা হত। এই অবস্থায় উদ্ধারের জন্য বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ, ভারতীয় দূতাবাস সহ অন্যদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন ওই যুবতি। পাশাপাশি, যে এজেন্ট তাঁকে সেখানে নিয়ে গিয়েছিল তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, “সৌদি আরবে বিউটিশিয়নের মতো কাজ করার জন্য একটি এজেন্টের তরফে আমাকে অফার দেওয়া হয়। মাসে ১০০০ রিয়েল দেওয়ার কথা বলে। সেই অনুযায়ী আমি সৌদি রওনা দিই। কিন্তু, সেখানে পা রাখার পরই বুঝতে পারি ওই ধরনের কাজ নেই। এজেন্টের তরফে আমাকে পরিচারিকার কাজে নিযুক্ত করে একটি বাড়িতে আটকে রাখা হয়।”

এছাড়া আরও বলেন, “আমি যখন বলি যে আমি ভারতে ফিরতে চাই, তখন তারা আমাকে জানায় সেটা সম্ভব নয়। পরিবর্তে ২ লাখ টাকা দিতে হবে। পরে আমার শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। কিন্তু, তারা আমাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়নি। নিয়োগকর্তার তরফে বলা হয় ভিক্ষা করতে এবং বিয়েবাড়ি ও বিভিন্ন অনুষ্ঠানে গিয়ে খাবার চাইতে। আমি তা করতে রাজি হয়নি।”

“ভারতীয় দূতাবাসের তরফে আমার নিয়োগকর্তার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। নিয়োগকর্তা আমাকে সে কথা জানালে বলি আমি ভারতে ফিরতে চাই। কিন্তু, তখন সে আমার কাছে নিশ্চিত হতে চায়, আমি যেন তাদের বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ না করি। তারপর আমাকে ছাড়া হয়। তারা আমাকে ভালো করে খেতে পর্যন্ত দিত না।”

সম্পর্কিত সংবাদ